মেননের সংসদ সদস্য পদ শূন্য ঘোষণার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১০ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০১৯

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের সংসদ সদস্য পদ শূন্য ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (এনপিপি) এবং এর নেতৃত্বাধীন জোট ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (এনডিএফ)।

রোববার গণমাধ্যামে পাঠানো এক বিবৃতিতে এনপিপি ও এনডিএফের চেয়ারম্যান শেখ ছালাউদ্দিন ছালু এ দাবি জানান।

তিনি বলেন, গতকাল (শনিবার) রাশেদ খান মেনন এমপি বরিশালে পার্টির এক সভায় দাবি করেন, আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি গত নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারেনি। অথচ মেনন এখনও নির্বাচন কমিশন কর্তৃক জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৪০ শতাংশ ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। তার দাবি যদি সঠিক হয় তাহলে নির্বাচন কমিশনের ভোটের তথ্যও সঠিক না এবং বিনা ভোটে কখনো একজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে সংসদে যেতে পারে না। প্রকাশ্যে ভোটারবিহীন নির্বাচনের দাবি করায় তার সংসদ সদস্য পদ আর থাকতে পারেন না।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশনের প্রতি আমাদের অনুরোধ তার দাবির প্রেক্ষিতে স্পিকার বরাবর তার সদস্যপদ বাতিল করার আবেদন করবে। আর তা না হলে তার দাবি যদি সত্যি হয় এবং তিনি স্বপদে বহাল থাকেন তাহলে নির্বাচন কমিশন বিতর্কিত হবে এতে কোনো সন্দেহ নেই।

শেখ ছালাউদ্দিন বলেন, গণমাধ্যমে তার বিরুদ্ধে ক্যাসিনো থেকে মাসিক চাঁদা গ্রহণের যে খবর এসেছে, তার প্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে সরকারের চলমান অভিযানে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে দুদককেও এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি।

এদিকে নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিয়ে দেয়া বক্তব্যের অংশবিশেষ গণমাধ্যমে ভুলভাবে প্রকাশ করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, ‘বরিশাল জেলা পার্টির সম্মেলনে আমার একটি বক্তব্য সম্পর্কে জাতীয় রাজনীতি ও ১৪ দলের রাজনীতিতে একটা ভুল বার্তা গেছে।’

রোববার (২০ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি এ দাবি করেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আমার বক্তব্য সম্পূর্ণ উপস্থাপন না করে অংশবিশেষ উত্থাপন করায় এ বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, এ যাবতকালের নির্বাচন ১৪ দলের সংগ্রামেরই ফসল এবং সরকারও গঠিত হয়েছে ১৪ দলের লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে। আজকে মৌলবাদ-সাম্প্রদায়িকতার যে বিপদ বিদ্যমান তাকে মোকাবিলা করতে ১৪ দলের ওই সংগ্রামকেই এগিয়ে নিতে হবে।’

এএস/বিএ/জেআইএম