ডাকসুর ভিপি ছিলাম দুবার, ক্লাস করিনি একদিনও : মান্না

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩৮ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, এর আগে যারাই ডাকসুর ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন, তারা কেউ কখনও চাকরি করেননি। আমিও ভিপি ছিলাম কিন্তু চাকরি করিনি। ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতি করতাম। দু-দুবার ডাকসুর নির্বাচিত ভিপি ছিলাম, কিন্তু একদিনও ক্লাস করিনি।

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বাংলাদেশ মহিলা বিজ্ঞানী সমিতির উদ্যোগে ‘ছাত্র রাজনীতি : অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মান্না বলেন, প্রতিদিনই রাজনৈতিক কাজে বিভিন্ন জায়গায় প্রোগ্রাম করেছি। আজকে এই থানায়, কালকে অন্য থানায়- এভাবে সময় পার করেছি, ক্লাস করতে পারিনি।

তিনি আরও বলেন, পাকিস্তানের সময়ে আইয়ুব খানও জিডিপি ও উন্নয়নের কথা বলতেন। পাকিস্তানজুড়ে উৎসব পালন করতেন। কিন্তু তিনি টিকে থাকতে পারেননি। কোনো স্বৈরাচার এই দেশে টিকতে পারবে না। দেশের গণতন্ত্র হরণ করে শুধু জিডিপি ও উন্নয়নের কথা বলে স্বৈরাচার টিকিয়ে রাখা যায় না।

মান্না বলেন, পাকিস্তান আমলে আইয়ুব খানের সময় এ দেশের জিডিপি ছিল ১১ দশমিক ৫ পয়েন্ট, কিন্তু তিনি কি স্বৈরাচার টিকিয়ে রাখতে পেরেছেন? পারেননি। বর্তমানে যারা ক্ষমতায় আছেন তাদের যতই শক্তিশালী দেখা যাক তারাও থাকতে পারবে না।

তিনি বলেন, ছাত্ররা দেশের পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির কথা বলবে, চালের মূল্যবৃদ্ধি হলে কথা বলবে, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি হলে কথা বলবে। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির কথা কি বলতে পারবে না? যদি খালেদা জিয়ার মুক্তির কথা বলতে না পারে তাহলে কি তিনি জেলে ধুঁকে ধুঁকে মরবেন? না ওই রকম ছাত্র রাজনীতি আমাদের দেশে কখনো হয়নি। আমাদের দেশে ছাত্ররা ’৫২ ও ’৭১ এ আন্দোলন করেছে, স্বাধীন করেছে। যতদিন পর্যন্ত গণতন্ত্র হরণ হবে ততদিন পর্যন্ত ছাত্ররাই ভ্যানগার্ড হয়ে থাকবে।

মান্না আরও বলেন, বর্তমান সরকার মানুষের ওপর যে অত্যাচার শুরু করেছে এর হাত থেকে রক্ষা পেতে ছাত্রদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। ছাত্ররা যদি পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধিতে আন্দোলন করতে পারে, ধানের দাম কমানোর মিছিল করতে পারে, তাহলে আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি করতে কেন তারা আন্দোলন করতে পারে না? যে সরকার পেঁয়াজের দাম কমাতে পারে না, রাস্তায় সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে পারে না, দুধ বিক্রেতারা দাম না পাওয়ায় রাস্তায় ফেলে দিচ্ছে, তাহলে এই সরকার আমাদের কী কাজে আসছে? আমরা দ্রুত এ সরকারের অপসারণ চাই।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রযুক্তি ও প্রকৌশল অনুষদের সাবেক ডিন ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা প্রফেসর ফারুকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেএসডির সভাপতি আসম আবদুর রব, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক প্রফেসর ড দিলারা চৌধুরী, বিএনপি'র যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, ডাকসুর বর্তমান ভিপি নুরুল হক নুর, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

কেএইচ/এমএসএইচ/এমএস