এলডিপির সভায় সেলিমের বিরুদ্ধে স্লোগান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫৬ পিএম, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯

কর্নেল (অব.) অলি আহমদের নেতৃত্বাধীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) থেকে বের হয়ে একই নামে আরেকটি দল গঠনের অন্যতম শীর্ষনেতা শাহাদাত হোসেন সেলিমের কঠোর সমালোচনায় অলির সমর্থকরা।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর পান্থপথে এলডিপি অলি অংশের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের ব্যর্থতা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় শাহাদাত হোসেন সেলিমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেয়া হয়। স্লোগানে বলা হয়, ‘অলির সৈনিক এক হও লড়াই করো, সেলিমের চামড়া তুলে নেব আমরা।’ বিভিন্ন নেতাদের বক্তব্যের বিরতিতে এসব স্লোগান দেয়া হয়।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ এলডিপি আয়োজিত এ আলোচনা সভায় জেএসডি সভাপতি আ. স. ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক ও এলডিপি সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ, মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমদসহ এলডিপির সিনিয়র নেতাদের বক্তব্য দেয়ার কথা থাকলেও এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ এবং প্রেসিডিয়াম সদস্য ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল ছাড়া আর কাউকে দেখা যায়নি।

সভায় এলডিপি মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ সরকারের সমালোচনা করে বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার যেন জামিন না হয় সেজন্য সরকারপ্রধান উসকানি দিচ্ছেন।

খালেদা জিয়াকে আপসহীন নেত্রী উল্লেখ করে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে যে মামলা রয়েছে তা জামিনযোগ্য। কিন্তু সরকারপ্রধানের উসকানির কারণে তাকে জামিন দেয়া হচ্ছে না।

খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনের জন্য বিএনপি যদি উদ্যোগ নেয় তার পেছন থেকে এলডিপি এবং জাতীয় মুক্তি মঞ্চ সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে বলেও জানান তিনি।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণেও সরকারের কঠোর সমালোচনা করেন রেদোয়ান আহমেদ।

গত ১৮ নভেম্বর রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে অলি আহমদকে বাদ দিয়ে একই নামে আরেকটি দলের ঘোষণা দেয়া হয়

কেএইচ/জেডএ/জেআইএম