জামায়াত থেকে সাবেক সচিব সোলায়মানের পদত্যাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৭ পিএম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

জামায়াতে ইসলামী থেকে পদত্যাগ করেছেন সাবেক সচিব এ এফ এম সোলায়মান চৌধুরী। মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে দলের আমির ডা. শফিকুর রহমানের কাছে তিনি পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন। পদত্যাগের আগ পর্যন্ত তিনি জামায়াতে ইসলামীর মজলিসে শুরার সদস্য ছিলেন।

পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ‘আমার ব্যক্তিগত কিছু সমস্যা ছিল। একান্তই ব্যক্তিগত কারণে পদত্যাগ করেছি।’ আবারও কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিশেষ কোনো কারণ নেই, একান্তই ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে পদত্যাগ করেছি।’

অন্য কোনো দলে বা নতুন কোনো প্লাটফর্মে যাওয়ার ইচ্ছা রয়েছে কি না? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘জনআকাঙ্ক্ষার কার্যক্রম আমি অবজার্ভ করছি। সেখানে যোগদান করব কি না সেটা বলার সময় এখনো আসেনি। কারণ, তারা এখনো দলীয় ফরমেটেই আসতে পারেনি। কেবল তারা জনগণের আকাঙ্ক্ষাটা জানার চেষ্টা করছে। সময়ই বলে দেবে সেখানে যোগদান করব কিনা।’

জামায়াতে ইসলামীর নবনিযুক্ত আমির বরাবর লেখা পদত্যাগপত্রে সোলায়মান চৌধুরী বলেন, ‘আশা করি ভালো এবং সুস্থতার সাথে আপনার (আমির) ওপর অর্পিত দায়িত্ব আমানতদারিতার সাথে পালন করছেন। আমি এ এফ এম সোলায়মান চৌধুরী ১০ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সদস্য পদে ইস্তফা প্রদান করলাম এবং সংগঠনের সকল দায়িত্ব ও পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।’

সোলায়মান চৌধুরী ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সচিব, পাটকল সংস্থার চেয়ারম্যান, চট্টগ্রাম ওয়াসা চেয়ারম্যান, জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান, পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, রাষ্ট্রপতির সচিবসহ গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। সর্বশেষ রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান পদ থেকে তিনি অবসরে যান।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, জামায়াতে ইসলামী থেকে বহিষ্কৃত মজিবুর রহমান মনজুর নেতৃত্বাধীন ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ আয়োজিত চট্টগ্রামের একটি আঞ্চলিক কর্মশালায় অংশ নেন সোলায়মান চৌধুরী। পরে জামায়াতের উচ্চপর্যায় থেকে তাকে ডেকে পাঠানো হয়। মূলত এরপর থেকে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিয়ে সমালোচনা শুরু করেন।

এদিকে সোলায়মান চৌধুরীর পদত্যাগের বিষয়ে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের বক্তব্য নেয়ার চেষ্টা করলে পাওয়া যায়নি।

জেইউ/আরএস/এমকেএইচ