ঢাকা নিয়ে ৩০ বছর মেয়াদি পরিকল্পনা নেবেন তাপস

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:১১ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২০

আসন্ন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, বুড়িগঙ্গা নদী সংরক্ষণ ও ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সৌন্দর্য বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতে ৩০ বছর মেয়াদি মহাপরিকল্পনা নেয়া হবে। তিনি বলেন, বুড়িগঙ্গা নদীর পাড় দিয়ে টগবগিয়ে ঘোড়ার গাড়ি চলবে।

মঙ্গলবার বুড়িগঙ্গা নদীর ধারে ঝাউলাহাটি সড়কে গণসংযোগকালে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে কামরাঙ্গীরচরের ঝাউচর বড় মসজিদ এলাকায় গণসংযোগ করেন তিনি। এ সময় তাপসের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের হাজারও নেতাকর্মী ছিলেন। এলাকার ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা একটি মোটরসাইকেল শোভাযাত্রাও করেন।

তাপস বলেন, অনেক দেশে একটি নদীর পাড়ে রাজধানী গড়ে উঠেছে । সেই একটি নদীকে কাজে লাগিয়ে তারা রাজধানীর সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলেছে অথচ আমাদের রাজধানীতে দুটি নদী, সেগুলোকে আমরা কাজে লাগাতে পারিনি।

বুড়িগঙ্গা প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, বুড়িগঙ্গা নদী এবং নদীর পাড়কে সংরক্ষণের মহাপরিকল্পনা নেয়া হবে। বুড়িগঙ্গার পাড় দিয়ে যাতায়াত ব্যবস্থা, বিনোদনমূলক নান্দনিক পার্ক, হাঁটার ব্যবস্থা, খেলার মাঠ, সাইকেল চালানো এবং ঘোড়ার গাড়ি চলার ব্যবস্থা করা হবে।

বুড়িগঙ্গা নদীতে বর্জ্য ফেলা হবে কি না- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বুড়িগঙ্গা নদীতে বর্জ্য ফেলার প্রশ্নই ওঠে না। পুরো বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রক্রিয়াকেই আধুনিক করা হবে। বাংলাদেশের চেয়ে অনেক গরিব দেশও বর্জ্য নদীতে বা মুক্ত সড়কের ওপর ফেলে না। নাগরিকসেবা থেকে ঢাকাবাসীবঞ্চিত। আমি নির্বাচিত হলে প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে মৌলিক নাগরিক সুবিধাগুলো নিশ্চিত করবো। এরপর ২০৪১ সালকে লক্ষ্য রেখে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশের উপযোগী করে রাজধানী গড়ে তোলা হবে।

এফএইচএস/এনএফ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]