সিটি নির্বাচন নিয়ে রিজভীর আশঙ্কা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:২৫ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২০

আসন্ন ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। বৃহস্পতিবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কারযালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি তার এই আশঙ্কার কথা জানান।

রিজভী বলেন, ‘আমরা আশঙ্কা করছি চট্টগ্রামের মতো ঢাকার দুই সিটির ভোটও সুষ্ঠু হবে না। চট্টগ্রাম-৮ আসনে উপ-নির্বাচনের মতো সরকারের বিশ্বস্ত ভাঁড় প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা ঢাকাতেও নিজের তেলেসমাতি অক্ষুণ্ন রাখবেন কি না সেটি নিয়েও জনমনে নানা প্রশ্ন দীর্ঘ হচ্ছে। বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাতের ভোট ডাকাতি উপহার দেয়ার জন্য মুচলেকা দিয়ে শেখ হাসিনার কাছ থেকে দামি বিএমডব্লিউ পেয়েছিলেন সিইসি হুদা।’

রিজভী বলেন, ‘ইভিএম দিয়ে ডিজিটাল ভোট ডাকাতির মহড়া হলো গত ১৩ জানুয়ারি চট্টগ্রাম-৮ আসনের শূন্য আসন এবং হাইমচরের উপজেলা নির্বাচন ভোটে। ওটা ছিল প্রস্তুতি ম্যাচ। সেখানে প্রমাণ হয়েছে ভোটার ছাড়াই ইভিএমে নৌকার প্রার্থীদের কীভাবে পাস করানো সহজ। গত ২৯ ডিসেম্বরে মিডনাইট ইলেকশনের পর গোটা বিশ্বের নিন্দা ও ধিক্কারের ঝড় সামলাতে না পেরে এই অবৈধ গণবিচ্ছিন্ন সরকার দেশের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ, নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সংস্থা এবং সরকারি দল ছাড়া প্রায় সব রাজনৈতিক দলগুলোর আপত্তি থোড়াই কেয়ার করে ইভিএম মেশিন দিয়ে ভোট ডাকাতির কৌশল নিয়েছে। তারা জানে, এখন কোনো নির্বাচনের আগে রাতে ভোট দেওয়া শুরু করলে আর কেউ না হোক সাংবাদিকরা সেখানে উপস্থিত হয়ে যাবেন। অতএব এবার তাদের আরেকটি নতুন পন্থা উদ্ভাবন করতে হয়েছে। সেটা হলো এই ইভিএম। এটাই বিস্ময়কর।’

তিনি বলেন, কার্যত ইভিএমে সুষ্ঠু ভোটের ন্যূনতম সুযোগ নেই। ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনও চট্টগ্রামের মতো দখলের নীলনক্শার প্রস্তুতি কি না তা নিয়ে জনমনে সংশয় দেখা দিয়েছে। ঢাকাতেও সন্ত্রাসী কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রচারণার সময়ে গ্রেফতার অভিযান করবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। এখন গ্রেফতার চলছে, অভিযানও চলছে, আক্রমণ চলছে, হামলা চলছে এবং হামলার মাধ্যমে একটা ভয়ভীতির পরিবেশ তারা সৃষ্টি করেছে। প্রতিনিয়ত নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করছে সরকারি দলের প্রার্থীরা। ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে। বেছে বেছে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাও নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে দলের ভাইসচেয়ারম্যান আহমেদ আজম খান, যুগ্ম মহাসচিব মাহাবুব উদ্দিন খোকন, সহ-দফতর সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কেএইচ/জেডএ/এমএস