আরামবাগের ৯২ নম্বর বাড়ির সামনে থমকে যান তাপস

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:১৩ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২০

সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী প্রচার চালাতে গিয়ে রাজধানীর আরামবাগে ৯২ নম্বর বাড়িতে গিয়ে হঠাৎ থমকে যান ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস। আরামবাগের ওই বাড়িতে শিশুকাল কেটেছে তার। ওই বাড়িতে থেকেছেন, খেলেছেন। ওই বাড়িতেই তার বেড়ে ওঠা। তাপসের দাদা এবং বাবা শেখ ফজলুল হক মনি ওই বাসায় থাকতেন।

রোববার (১৯ জানুয়ারি) নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় যখন ওই বাড়ির সামনে যান তখন তাপসের মনে পড়ে ফেলে আশা শিশুকালের কথা। এক পর্যায়ে বাড়ির সামনে গিয়ে থমকে দাঁড়ান তিনি। এ সময় বাড়ির সামনে থাকা লোকজনকে জড়িয়ে ধরেন, কথা বলেন। কেমন আছেন তারা সেই খোঁজ-খবর নেন। বাড়ির মুরব্বিরাও তাকে কাছে পেয়ে আবেগে জড়িয়ে ধরেন। মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করেন, দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

এ সময় আবেগাপ্লুত তাপস যেন কিছুক্ষণের জন্য ফিরে যান শৈশবে। এমন দৃশ্য দেখে উপস্থিত নেতাকর্মীরাও আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

শেখ ফজলে নূর তাপসের মিডিয়া সমন্বয়ক তারেক শিকদার বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের পর পরিবারের সঙ্গে ওই বাড়িতে শৈশবের দিনগুলো কেটেছে ওনার (শেখ ফজলে নূর তাপস)। ওনার দাদা, বাবা শেখ ফজলুল হক মনির সঙ্গে দীর্ঘদিন ওই বাড়িতে থেকেছেন। বসবাসের জন্য ধানমন্ডিতে স্থানান্তর হওয়ার আগে ওই বাড়িতেই তার দিনগুলো কেটেছে।’

এর আগে রোববার মতিঝিলে নটরডেম স্কুলের পাশে নির্বাচনী প্রচার শুরু করেন তাপস। এরপর ওই এলাকার বিভিন্ন অলিতে-গলিতে প্রচার চালান তিনি। এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, সিলেটের সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদে কামরান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোর্শেদ কামাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দাবির মুখে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখ পরিবর্তন করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নতুন তারিখ অনুযায়ী ১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) ঢাকার দুই সিটির ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এফএইচএস/আরএস/এমকেএইচ