সিটি নির্বাচনে প্রমাণিত দেশে গণতন্ত্র নেই : মোশাররফ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৫২ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

দেশে গণতন্ত্র নেই এটি ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি ও ডিএসসিসি) নির্বাচনে প্রমাণিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মোশাররফ হোসেন।

রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নয়াপল্টনের একটি কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘আবারো প্রমাণিত হলো, দেশে গণতন্ত্র নেই। এটাই হচ্ছে আমাদের সফলতা। ঢাকার সিটি নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারলে বিএনপি সমর্থিত মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা বিপুল ভোটে বিজয়ী হতো। সরকারের ডাকাতি, চুরি, রাহাজানি, লুট, গণতন্ত্র হত্যা ও ক্যাসিনোর কারণে জনগণ বিক্ষুব্ধ ছিল।’

তিনি বলেন, ‘তারা (জনগণ) এর জবাব দিতে চেয়েছিল। এটা বুঝতে পেরে সরকার জনগণকে ভোট দিতে বিরত রাখার পরিবেশ সৃষ্টি করে। জনগণও তাদের প্রত্যাখ্যান করে ভোট দিতে আসেনি।’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ এ নেতা বলেন, ‘আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলাম। ঢাকার দক্ষিণে ও উত্তরে জনগণের মধ্যে ধানের শীষের পক্ষে যে জনসমর্থন সৃষ্টি হয়েছিল সেটা মিডিয়ার মাধ্যমে দেশের মানুষ দেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘সরকার এ নির্বাচন ইভিএমের মাধ্যমে করেছে। কারণ, একাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোটারদের সম্মুখীন হতে সাহস পায়নি। ২৯ তারিখে ভোট ডাকাতি করেছে। তারা মনে করেছে, একাদশ সংসদ নির্বাচনের মতো আগের রাতে ভোট ডাকাতির যে কৌশল সেটা আমরা জেনে ফেলেছি। সেজন্য সে কৌশলে না গিয়ে ইভিএম কৌশল গ্রহণ করেছে।’

ড. মোশাররফ বলেন, ‘এখানে আমাদের কাউন্সিলররা সবাই বলেছেন, নির্বাচনে ৭ ভাগের বেশি ভোটার উপস্থিত হয়নি। তারপরও দক্ষিণে ২৯ আর উত্তরে ২৫ ভাগ ভোট দেখানো হয়েছে ইভিএম কারচুপির মাধ্যমে। ইভিএম যে গ্রহণযোগ্য নয়, সেটা প্রমাণিত হয়েছে। স্বয়ং প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) আঙ্গুলের ছাপ মেশিন গ্রহণ করেনি।’

তিনি বলেন, ‘তিনি প্রিসাইডিং অফিসারের আঙুলের ছাপে ভোট দিয়েছেন। এতেই প্রমাণিত হয়েছে, এই মেশিন কত ত্রুটিপূর্ণ। এভাবে প্রিসাইডিং ও সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের আঙুলের ছাপ দিয়ে কতজন ভোট দিয়েছে। সেটা গণনা থেকে বোঝা যায়।’

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে পুনঃপ্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন করেছেন। আমরা দেখেছি, একটি মিথ্যা ফরমায়েশি মামলায় তাকে কারাগারে রাখা হয়েছে। এর একমাত্র কারণ, যারা আজকে সরকারে আছে তারা গণতন্ত্রের পক্ষে নয়, খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের পক্ষে। সেই গণতন্ত্র যাতে পুনরুদ্ধার না হয় সেজন্য আমাদের নেত্রী কারাগারে।’

ডিএসসিসি নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপি নেতা আবদুস সালাম, আব্দুস সালাম আজাদ, রফিক সিকদার, শিরিন সুলতানা, কাজী মফিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কেএইচ/এফআর/এমকেএইচ