নজরুল ছিলেন বাঙালির চিরায়ত মনন ও চেতনার কবি

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:০৫ পিএম, ২৪ মে ২০২০

কাজী নজরুল ইসলাম বাঙালির চিরায়ত মনন ও চেতনার কবি ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আগামী সোমবার (২৫ মে, বাংলা ১১ জ্যৈষ্ঠ) জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে রোববার (২৪ মে) এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কাজী নজরুল ইসলাম ছিলেন বাঙালির চিরায়ত মনন ও চেতনার কবি। বাংলা সাহিত্যে কাজী নজরুল পরিচিত ছিলেন প্রেম-দ্রোহ ও সাম্যের কবি হিসেবে। তার ক্ষুরধার লেখনীতে অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধ মন্ত্র শাণিত ছিল। ‘চির উন্নত মম শির’ উচ্চারণে কবি সারাজীবন বিদ্রোহ ও সংগ্রাম করেছেন শোষণ ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে। কুসংস্কার, ধর্মান্ধতা ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে কবি গেয়েছেন মানবতার জয়গান। ব্রিটিশ শাসকদের শোষণ, নির্যাতন ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে কলম ধরে তিনি বাঙালি জাতীয়তাবোধের জাগরণ ঘটিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘বাংলা বাঙালির হোক, বাংলার জয় হোক, জয় বাংলা’। সাহিত্যের কবি হতে রাজনীতির কবি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ‘জয় বাংলা’ হয় বিজেতা বাঙালির স্লোগান।

“মানবতার কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন এমন একটা সময়ে সমাগত যখন সারাবিশ্ব এক মানবিক সংকটের সম্মুখীন। প্রাণঘাতী মহামারি করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে সকলকে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হচ্ছে। এই কারণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সকল ধরনের জনসমাগমপূর্ণ কর্মসূচি পরিহার করে আসছে। আবার একই দিনে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর সমাসন্ন। সে কারণে এ বছর কবির জন্মদিনে কোনো আনুষ্ঠানিক কর্মসূচি পালন করা সম্ভবপর হচ্ছে না।”

বিবৃতিতে দেশবাসীকে শ্রদ্ধায় চেতনায় বাঙালির জাতীয় কবিকে স্মরণ করার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

এফএইচএস/এইচএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]