৮০% ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাড়তি চাপ তৈরি করবে : খালেকুজ্জামান

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ৩০ মে ২০২০
ফাইল ছবি

গণপরিবহনের ভাড়া ৮০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে অন্যায় ও অযৌক্তিক বলে আখ্যায়িত করে এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান।

গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তিনি বলেন, করোনা সংকটে জনগণ এমনিতেই বিপর্যস্ত। সরকার বিশেষজ্ঞ মতামত না নিয়েই সবকিছু খুলে দিয়ে নিজের দায়িত্ব এড়াতে চাইছে এবং জনগণকে মৃত্যুমুখে ঠেলে দিয়েছে। উপরন্তু মরার উপর খাড়ার ঘা হিসেবে গণপরিবহনের ভাড়া ৮০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যা সম্পূর্ণ অন্যায়, অযৌক্তিক ও জনগণের সাথে এক নির্মম তামাসা ছাড়া কিছুই না।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ঢাকা মহানগরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে কিভাবে গণপরিবহন চলবে তা কোনোভাবেই দেশবাসীর কাছে বোধগম্য নয়। যেখানে বিআরটিএ ফিটনেসবিহীন গাড়ী চলাচলের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারে না, সেখানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাড়ি চালাতে বাধ্য করবে এটা কোনো মতেই বিশ্বাসযোগ্য না।

বিবৃতিতে বলা হয়, যদি সত্যিই স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোনো পরিবহন চলে, তাহলে যদি বাস মালিকের ক্ষতি হয়, তা সরকার ভর্তুকি দিয়ে পূরণ করুক, সরকার কোনো দায়িত্ব না নিয়ে সব জনগণের কাঁধে চাপিয়ে দেবে কেন।

উল্লেখ্য, শনিবার শেষ হচ্ছে করোনাভাইরাসের কারণে সরকার ঘোষিত টানা ৬৬ দিনের ছুটি। এটিই দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে লম্বা ছুটি। এ ছুটির অবসানের ফলে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত সরকারি নির্দেশনা সাপেক্ষে সীমিত পরিসরে সরকারি-বেসরকারি অফিস খুলছে। একই সঙ্গে নামছে গণপরিবহনও (বাস, লঞ্চ, ট্রেন)। এদিকে করোনা থেকে সুরক্ষায় বাসগুলোকেও মেনে চলতে হবে বেশ কিছু নির্দেশনা। যেমন : বাসগুলো চলবে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে। এমন পরিস্থিতিতে ৮০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর সুপারিশ করেছে বিআরটিএ।

এফএইচএস/এনএফ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]