দুর্দিনের একজন বলিষ্ঠ সিপাহসালারকে হারালাম : রিজভী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৮ পিএম, ৩০ জুলাই ২০২০
ফাইল ছবি

সদ্য প্রয়াত শফিউল বারী বাবুর অবদানের কথা স্মরণ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দুর্দিনের একজন বলিষ্ঠ সিপাহসালারকে আন্দোলনের কাফেলা থেকে আমরা হারালাম।

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে প্রয়াত সভাপতি শফিউল বারী বাবুর স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রিজভী।

ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আাবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েলের পরিচালনায় দোয়া মাহফিলে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, এবিএম মোশাররফ হোসেন, শহিদুল ইসলাম বাবুল, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, আকরামুল হাসান, যুব দলের মোরতাজুল করীম বাদরু, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ছাত্র দলের ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

রিজভী বাবুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ‘এখন চারদিকে যে দুর্দিন চলছে, এ দুর্দিনে শফিউল বারী বাবুও সামনের কাতারে থাকতো। দুর্দিনের একজন বলিষ্ঠ সিপাহসালারকে আন্দোলনের কাফেলা থেকে আমরা হারালাম।’

‘আমাদের এ আন্দোলন চলমান, এখনো গণতন্ত্র ফিরে আসেনি। এখনো কর্তৃত্ববাদী শাসন, গুম, মিথ্যা মামলা ও ক্রসফায়ারের আতঙ্ক রয়েছে। এ আতঙ্কের মধ্যে যেসব নির্ভিক তরুণ মিছিলের সামনে থাকতো তার মধ্যে বাবু (শফিউল বারী বাবু) একজন। আমাদের মাঝে আজ সেই বাবু নেই, তবে আমরা সবসময় তাকে স্মরণ করবো।’

পরে বাবুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন ক্কারী রফিকুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জুলাই শফিউল বারী বাবু ফুসফুস জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে এভারগ্রিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫১ বছর।

কেএইচ/এএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]