‘আউয়াল-বাবু সাদামাটা জীবনযাপন করতেন’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৫ পিএম, ০৭ আগস্ট ২০২০

জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু ও বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল খান অত্যন্ত বিনয়ী রাজনীতিবিদ ছিলেন বলে মন্তব্য করেছন সাবেক ছাত্রনেতা ও তার দীর্ঘ সময়ের রাজনৈতিক সহকর্মীরা।

জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি প্রয়াত শফিউল বারী বাবু ও বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক প্রয়াত আব্দুল আউয়াল খান স্মরণে শুক্রবার সকালে (৮ জুলাই) বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন’ ব্যানারে আয়োজিত স্মরণ সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সাবেক ছাত্রনেতা ও তার রাজনৈতিক সহকর্মীরা এ কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, শফিউল বারী বাবু ও আব্দুল আউয়াল খান দুজনেই খুব সাদামাটা জীবনযাপন করতেন। তারা দুজন কখনোই অন্যায়ের সঙ্গে আপোষ করেননি। ঢাকা কলেজ থেকে দীর্ঘ সময় তারা একসঙ্গে রাজনীতি করেছেন। সকল রাজনৈতিক আন্দোলনে তারা অগ্রভাগে থেকেছেন। তারা ছিলেন জাতীয়তাবাদী শক্তির পরীক্ষিত নেতৃত্ব। খুব বড় অসময়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। যা আমাদের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি।

এ সময় তাদের মৃত্যুর শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনকে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বক্তারা বলেন, বাবুদের স্বপ্ন ছিল সত্যিকার অর্থে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র। যেখানে মানুষের সকল প্রকার মৌলিক অধিকার থাকবে।

ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের সভাপতি আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম সম্পাদক রিয়াদ মো. ইকবালের সঞ্চলনায় প্রধান অতিথি ছিলেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল।

স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মালেক, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন, ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন প্রমুখ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সিনিয়র সহ সভাপতি রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ, সহ সভাপতি হাফিজুর রহমান, ওমর ফারুক কাউসার, সহ সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন, আবু আফসান ইয়াহিয়া, মহানগর পূর্ব ছাত্রদলের সভাপতি খন্দকার এনামুল হক, মহানগর উত্তর ছাত্রদলের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আপেল মাহমুদ প্রমুখ।

কেএইচ/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]