প্রকৃতি-প্রাণির সান্নিধ্যে সাভারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪২ পিএম, ৩০ আগস্ট ২০২০

 

সাভারের বাইশমাইল এলাকায় কৃষি ফার্ম গড়ে তুলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এই ফার্মে গরু, মুরগি, হরিণ, ইমু পাখি, হাঁস ও ভেড়া পালন করা হয়। রয়েছে সবজি ও ফলের বাগানও। রাজধানীর কোলাহল এড়িয়ে, তুমুল ব্যস্ততাকে পাশে রেখে মাঝে মাঝেই মন্ত্রী ছুটে যান সেখানে। প্রকৃতি-প্রাণির সমন্বয়ে গড়ে তোলা এ ফার্মটিতে এসে ফেলেন স্বস্তির নিঃশ্বাস।

রোববার (৩০ আগস্ট) ছুটির দিন বিকেলেও মন্ত্রী যান সেখানে। মুক্ত বাতাস ছুঁয়ে আড্ডায় মেতে চমৎকার কিছু সময় কাটিয়েছেন ফার্মের কর্মীদের সঙ্গে। ঘুরে ঘুরে দেখেছেন ফার্মের পালিত প্রাণিগুলো।

kamal-4.jpg

সাভারের বাইশমাইলে রয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পারিবারিক প্রতিষ্ঠান সাভার রি-ফ্যাক্টরিজ লিমিটেড। এই প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান তার স্ত্রী এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক তার ছেলে। এটি ফায়ার ব্রিকস তৈরির প্রতিষ্ঠান। সেই প্রতিষ্ঠানের পাশেই এই ফার্মটি।

রোববার ফার্ম পরিদর্শনের সময় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপুও ছিলেন মন্ত্রীর সঙ্গে। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘৩/৪ বছর আগে স্যার শখের বশেই এই ফার্মটি শুরু করেছিলেন। ফার্মের গরুর দুধ খাবেন, গরু কোরবানি দেবেন। কিন্তু গরু বাড়তে বাড়তে ৭০টিরও বেশি হয়ে গেছে। তাই এটি বাণিজ্যিক রূপ নিয়েছে এটি। একইভাবে হাঁস ও ভেড়াও পালন করা হচ্ছে।’

kamal-4.jpg

এখানে বন বিভাগের অনুমোদন সাপেক্ষে হরিণ ও ইমু পাখি পালন করা হয় জানিয়ে শরীফ মাহমুদ বলেন, ‘ফার্মে লাউ, পেঁপে, বেগুনসহ বিভিন্ন ধরনের মৌসুমি সবজির চাষ হয়। সবজি চলে যায় স্যারের বাসায়। স্যারের বাসার জন্য আজকেও দুটি লাউ নিয়েছি আমরা। এখানে আম, আমড়া, লেবু, পেয়ারা গাছও রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বিকেল ৪টার দিকে মন্ত্রী ফার্মে পৌঁছান। সেখানে আমরা দেড় ঘণ্টার মতো ছিলাম। সেখানে গিয়ে স্যার বসে একটু রিল্যাক্স করেছেন। মুক্ত বাতাসে বসে মন্ত্রী হিসেবে আনুষ্ঠানিক ব্যক্তিত্বটি ঝেড়ে ফেলে সবার সঙ্গে বসে গল্প মেতে ওঠেন। সবার খোঁজ-খবর নেন।’

kamal-4.jpg

‘মন্ত্রী মহোদয় এক-দেড় মাস পরপরই এখানে আসেন। কাজের চাপের মধ্যে মুক্ত বাতাসে একটু প্রশান্তি খোঁজেন’, যোগ করেন শরীফ মাহমুদ অপু।

আসাদুজ্জামান খান কামাল ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দশম জাতীয় সংসদে এমপি নির্বাচিত হয়ে ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান। পরে ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই একই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে পদোন্নতি পান তিনি। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। নতুন সরকারে ফের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান।

kamal-4.jpg

আসাদুজ্জামান খান একজন মুক্তিযোদ্ধা। তার নির্বাচনী আসন ঢাকা-১২ (তেজগাঁও, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, হাতিরঝিল, শের-ই-বাংলা নগর)।

আরএমএম/এফআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]