‘আগুনের ঘটনা আড়ালকারীদেরও আইনের আওতায় আনা উচিত’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৫ পিএম, ২২ নভেম্বর ২০২০

রাজধানীর কয়েকটি স্থানে গাড়িতে আগুনের ঘটনা আড়ালকারীদেরও আইনের আওতায় আনা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

রোববার (২২ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাঙ্গুনিয়ায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের গরু-বাছুর প্রদান উদ্বোধন শেষে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা জানান।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, গত ১২ নভেম্বর যেভাবে গাড়িতে আগুন দেয়া হলো এবং ২০১৪-১৫ সালের ঠিক একইভাবে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করা হয়েছিল। এই ন্যাক্কারজনক কাজটি করার পর আরেকটি ন্যাক্কারজনক কাজ করা হয়েছে। বিএনপি যদি বলত কারা এ কাজ করেছে, খুঁজে বের করার পর সেটা যদি আমাদের দলীয় কেউ হয় তাদের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। সেই কথা না বলে মির্জা ফখরুল সাহেবসহ বিএনপির ঊর্ধ্বতন নেতারা এটি নিয়ে মিথ্যাচার করেছে, অস্বীকার করেছে। এর মাধ্যমে তাদের মধ্যে যে দুষ্কৃতকারী আছে তাদের আড়াল করার চেষ্টা করেছে। যেসব দুষ্কৃতকারী এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে তারা যেমন অপরাধী তেমনি যারা এই দুষ্কৃতকারীদের আড়াল করার চেষ্টা করেছে তারাও অপরাধী।

তিনি বলেন, যারা এক্ষেত্রে মদত ও অর্থ দিয়েছেন তারাও সমানভাবে অপরাধী। ইতোমধ্যে ভিডিও ফুটেজ দেখে অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং অতিসম্প্রতি যুবদল, ছাত্রদলের কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা স্বীকার করেছেন বনানীতে বসে এই পরিকল্পনা হয়। কোথথেকে অর্থ এসেছে সেগুলো তারা স্বীকার করেছে। এই স্বীকারোক্তির পর মির্জা ফখরুল সাহেবরা বলবেন। এখন জনগণের দাবি হচ্ছে যারা এভাবে বাসে আগুন দিয়েছেন পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করেছেন তারা যেমন অপরাধী, যারা তাদের নিয়ে মিথ্যাচার করে তাদের আড়াল করার অপচেষ্টা চালিয়েছে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

গণতন্ত্র নিয়ে বিএনপি নেতা গয়েশ্বরের মন্তব্যের বিষয়ে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, গয়েশ্বর বাবু সকালে একবার আওয়ামী লীগ এবং শেখ হাসিনার সরকারের বিষোদগার করেন, আবার বিকেলে আবারও করেন। এটিই প্রমাণ করে দেশে গণতন্ত্র আছে। গণতন্ত্র আছে। গণতন্ত্র হরণ করেছিল বিএনপি। বন্দুক উঁচিয়ে ক্ষমতা দখল করেছিল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান আর ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে কি গণতন্ত্র ছিল? সেই নির্বাচনে যখন বঙ্গবন্ধুর খুনিকে বিরোধীদলীয় নেতা বানিয়ে তার গাড়িতে পতাকা লাগিয়ে দেয়া হয়েছিল তখন গণতন্ত্র হরণ করা হয়েছিল। দেশে গণতন্ত্র আছে। এই গণতন্ত্রকে নস্যাৎ করার পরিকল্পনা চালিয়ে যাচ্ছে বিএনপি।

আইএইচআর/বিএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]