মামলা বিএনপি নেতাকর্মীদের গলার মালা : আলাল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫০ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০২১
ফাইল ছবি

মামলা বিএনপি নেতাকর্মীদের গলার মালা বলে মন্তব্য করেছেন দলটির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

তিনি বলেছেন, ‘মামলা হচ্ছে আমাদের গলার মালা। বেগম খালেদা জিয়া থেকে শুরু করে তারেক রহমানের নামে এই মামলা আমরা ফুলের মালা হিসেবে বরণ করে নিয়েছি। যতদিন বেঁচে থাকব এই মামলা গলার মালা হিসেবে রাখব। যতক্ষণ পর্যন্ত না আওয়ামী লীগের গলায় ফেরত দিতে না পারব, ততদিন পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।’

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা মহাগর বিএনপির উদ্যোগে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, মানববন্ধন যে যুবক ভাইয়েরা বসে আছেন, একটা কথা জবাব দেন তো— তারেক রহমান নামের কোনো বিশেষণ লাগানোর প্রয়োজন আছে কিনা। বরং এই সরকারের নামের পরে অনেক বিশেষণের দরকার আছে। আমরা যে কথাগুলো বারবার বলি, সেই কথাগুলো তাদের মধ্যেই এখন জোরেশোরে আলোচনা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই বললেন— নির্বাচন নিয়ে টালবাহানা হচ্ছে। আওয়ামী লীগ ভোট চুরি করছে, লুটপাট করছে। অপরদিকে সাঈদ খোকন বলে— তাপস চোর। আর তাপস বলে— সাঈদ খোকন ডাকাত। এই যে নতুন নতুন বিশেষণ যোগ হচ্ছে, এগুলো তো আমরা করছি না। খোদ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই করছে। আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করেছেন তার চেয়ে বেশি জরুরি হচ্ছে আপনাদের নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব মিটানো।

এ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের পরে পুলিশ মামলা করেছে, সেটা চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে। সেই মামলায় পুলিশ আবার নারাজি দিয়েছে। এদিকে ঢাকার অন্য একটি হত্যা মামলার ব্যাপারে পিবিআই ফাইনাল দিয়েছে, আবার সেটা নারাজিও দিয়েছে। এই যে নিজেদের মধ্যে বিশেষণ এক এক করে বের হয়ে আসছে, এটা থেকে দৃষ্টি সরানোর জন্য চাল-ডাল-তেল-লবণ এর দাম বাড়ানো হয়েছে। আবার এই জায়গা থেকে জনগণের মাথা সরানোর জন্য মামলার সূত্রপাত করা হয়েছে।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম, স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামিমুর রহমান শামিম, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তাজুল করিম বাদরু, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল, সিনিয়র সহ-সভাপতি গোলাম সারোয়ার, কৃষকদলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনুকুল ইসলাম শ্রাবণ, সাধারণ সস্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ বক্তব্য দেন।

কেএইচ/এএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]