জনতা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে প্রস্তুতি নিচ্ছে : ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩২ এএম, ০১ মার্চ ২০২১
ফাইল ছবি

সরকারের কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘এই অরাজকতা মানুষ আর সহ্য করবে না। সংগ্রামী জনতা পথে-ঘাটে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে এখন প্রস্তুতি নিচ্ছে।’

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে ছাত্রদলের তিন নেতা নিখোঁজের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব। তাতে তিনি এসব কথা বলেন।

দলটির সহ-দফতর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে বলা হয়, ঢাবি ছাত্রদলের তিনজন নেতাকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক তুলে নিয়ে যাওয়া এবং তাদেরকে আটকের বিষয়টি অস্বীকারের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন ফখরুল।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আজ সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে সাতটার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সদস্য আনিসুর খন্দকার অনিক, স্যার এ এফ রহমান হল ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার জিসান এবং সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রদলের কর্মী আতিক মোর্শেদকে টিএসসি এলাকা থেকে সাদা পোশাকধারী আইন শৃঙ্খল-রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আটক করে নিয়ে যায়। কিন্তু আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তাদেরকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করছে না। আটকের পর থানাসহ সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ করেও তাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে তাদের পরিবার ও সংগঠনের নেতাকর্মীরা গভীর উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রয়েছেন।’

ফখরুল বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনা কেবলমাত্র দুর্বিনীত দুঃশাসনেই ঘটে থাকে। নিষ্ঠুর কর্তৃত্ববাদী শাসনের কারণেই রাষ্ট্র-সমাজে আতঙ্কের পরিবেশ বিরাজ করছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এখন আইনের রক্ষক না হয়ে দেশবাসীর কাছে মূর্তিমান আতঙ্কে পরিণত হয়েছে। ভোটারবিহীন একদলীয় শাসনকে টিকিয়ে রাখতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী প্রাইভেট বাহিনীর মতো কাজ করছে। এই অরাজকতা মানুষ আর সহ্য করবে না। সংগ্রামী জনতা পথে-ঘাটে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে এখন প্রস্তুতি নিচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি অবিলম্বে আনিসুর খন্দকার অনিক, জুলফিকার জিসান এবং আতিক মোর্শেদকে জনসম্মুখে হাজির করার জন্য আইন -শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি জোর আহ্বান জানাচ্ছি।’

কেএইচ/এমআরআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]