সাহস ও শক্তি সঞ্চয় করে মাঠে নামার আহ্বান আব্বাসের

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০১ পিএম, ০৬ মার্চ ২০২১

বিএনপি নেতাকর্মীদের আরও সাহস ও শক্তি সঞ্চয় করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

শনিবার (৬ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।

‘লেখক ও সাংবাদিক মুশতাক আহমেদ এবং সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে’ এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘এভাবে চলবে না। আপনারা সাহস করে এখানে বসে আছেন, আপনাদেরকে আমি ধন্যবাদ জানাই। আমাদেরকে আরও সাহস ও শক্তি সঞ্চয় করতে হবে। এই স্বৈরাচার সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। আমরা একজন একজন করে কোটি জনগণ একসঙ্গে হয়ে একদিন এই স্বৈরাচার সরকারের পতন ঘটাব।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রতিবাদ সভা করছি- এটা করছি কারণ আমরা আমাদের কথা বলার অধিকার চাই। আমরা দেশের স্বাধীনতা চাই। আমরা দেশের মানুষের স্বাভাবিক কথা বলার গ্যারান্টি চাই। আমরা স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই। কিন্তু আজকে চারিদিকে কত অত্যাচার, নির্যাতন ও নিপীড়ন। এতো ভয় কিসের। কাকে এতো ভয়?’

সরকারের উদ্দেশ্যে আব্বাস বলেন, ‘যাকে ভয় পাবেন তাকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করে আটকে রেখেছেন (বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া)। যাকে ভয় পাচ্ছেন, সেই তারেক রহমান প্রবাসে আছেন। যাকে ভয় পাচ্ছেন, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, উনি আমাদের মাঝে নেই। তবু এতো ভয় কেন আপনাদের? আমি বুঝতে পারি না। এতো ভয় কি জন্য।’

কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে আজ সকাল ৯টার পর থেকে থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা সমাবেত হতে থাকে। প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী এই সমাবেশে অংশ নেন। তাদেরকে প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে বসে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশ নিতেও দেখা গেছে।

এদিকে স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে কদম ফোয়ারা, তোপখানা রোডে ও সচিবালয়ের সামনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলেন। এ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা পথচারীদের তল্লাশি করে।

তবে অন্যান্য কর্মসূচির তুলনায় স্বেচ্ছাসেবক দলের আজকের কর্মসূচিতে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিল একেবারেই নগণ্য। এর মধ্যে আবার নিজেদের মধ্যে কয়েকজন মারামারি করে রক্তাক্তও হয়েছেন।

কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসা নেতাকর্মীদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বাধা দিয়েছেন বলেও প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে অভিযোগ করেন নেতারা।

স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েলের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, স্বেচ্ছাসবেকল দলের সহ-দফতর সস্পাদক নাজমুল হাসান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কেএইচ/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]