ঈদের পর ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি হতে পারে : ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৫ পিএম, ০৯ মে ২০২১ | আপডেট: ০৪:১৬ পিএম, ০৯ মে ২০২১
ফাইল ছবি

সরকার ঘরমুখো মানুষকে নিয়ন্ত্রণ এবং সঠিকভাবে লকডাউন বাস্তবায়ন করতে পারেনি বলে উল্লেখ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘বিপজ্জনক অবস্থায় এসেছে দেশ। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করে বলছেন, ঈদের পর একটা ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি হতে পারে।’

রোববার (৯ মে) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত জানাতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার লকডাউন ঘোষণা করল, তা বাস্তবায়নে কোনো ব্যবস্থা নেই। আমরা দেখলাম, গণপরিবহনে, ফেরিতে হাজার হাজার মানুষ ওঠার চেষ্টা করছে, যাচ্ছে। ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় শপিংমলগুলো মানুষে বোঝাই। এটাকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য যে প্রচেষ্টা দরকার, যে উদ্যোগ দরকার সেই উদ্যোগ নিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে অথবা নিতে চান না–এটাই আমাদের কাছে মনে হয়েছে।’

করোনার টিকা প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ভারতকে খুশি করার জন্য সরকার চীন-রাশিয়া থেকে টিকা নেয়নি, এখন ভারত টিকা দেয়া বন্ধ করেছে এই প্রতারণার দায় সরকারকে নিতে হবে।’

প্রবাসী শ্রমিকদের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘প্রবাসী শ্রমিকদের মধ্যে যারা দেশে এসেছেন তাদের মধ্যে ৭৭ ভাগ একেবারেই কর্মহীন। তারা দুরবস্থার মধ্যে রয়েছেন। আমরা কিন্তু ২০২০ সালে যখন করোনাভাইরাস মোকাবিলায় যে প্রণোদনার প্রস্তাব তুলে ধরেছিলাম সেখানে প্রবাসী শ্রমিকদের জন্য অর্থ বরাদ্দের কথা বলেছিলাম। প্রবাসী শ্রমিকরা আমাদের রেমিট্যান্স আয়ের একটা বড় খাত। এক্ষেত্রে চরম উদাসীনতার পরিচয় দিয়েছে সরকার।’

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য কর্তৃক সরকার দলীয় দেড়শ কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ প্রদানের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘কোথাও কোনো জবাবদিহিতা আছে? কোথাও আইন আছে? এই সরকার কি কোনো সুশাসন দিতে পারছে? কোনো সেক্টরে জবাবদিহিতা নেই। ফলে গোটা জাতি আজকে বিপদগ্রস্ত হয়ে পড়েছে এবং এদেশ একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।’

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, লকডাউনের নামে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেফতার, সরকারের আপদকালীন খাদ্য মজুত কমে যাওয়ার ঘটনায় সরকারের ভূমিকায় বৈঠকে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয় বলে জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এছাড়া লকডাউনে নিম্ন-আয়ের মানুষের দুর্ভোগ লাগবে ‘ওএমএস’ চালু ও বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণের দাবি জানানো হয় বলে জানান বিএনপি মহাসচিব।

কেএইচ/জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]