সরকার দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে : ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৪৮ পিএম, ১৭ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

‘সরকার কর্তৃত্ববাদী শাসন কায়েম করে দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দলের ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘ভিন্ন মত ও পথের রাজনীতি, সরকারবিরোধী আন্দোলন তো বটেই, শহীদ জিয়ার শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানও সরকার নিষ্ঠুর কায়দায় দমন করছে। আজ সকালে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের আয়োজনে ময়মনসিংহের শম্ভুগঞ্জে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য হাবিবুর রশিদ হাবিব, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে আলোচনা সভায় পুলিশ নির্বিচারে লাটিচার্জ, গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।’

বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করে বলেন, ‘পুলিশের হামলায় ছাত্রদলের ১০ জন নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হন। গ্রেফতার করা হয় অনেক নেতাকর্মীকে এবং শতাধিক নেতাকর্মী আহত হন। এরই প্রতিবাদে আজ বিকেলে ঢাকায় নয়াপল্টনে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হলে পুলিশ মিছিলের পেছন দিক থেকে ন্যাক্কারজনকভাবে বেধড়ক লাটিচার্জ ও গ্রেফতার করে। পুলিশ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ করে রাখে। কার্যালয়ে প্রবেশ বা বের হওয়ার সময় এ পর্যন্ত ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে।’

বিবৃতিতে তিনি তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ‘বিগত ১২ বছর ধরে নিষ্ঠুর কায়দায় দমন, নিপীড়ন চালিয়ে সরকার বিএনপিকে ধ্বংস করতে চেয়েছে, কিন্তু পারে নাই। হামলা-প্রতিবন্ধকতা চালিয়ে কোনো সরকার বেশিদিন ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারে না, বিনা ভোটের এই কর্তৃত্ববাদী শাসকও পারবে না।’

বিবৃতিতে তিনি ময়মনসিংহ ও ঢাকায় গ্রেফতার হওয়া বিএনপি নেতাকর্মীদের মুক্তি এবং হয়রানি বন্ধ করার দাবি জানান।

কেএইচ/এমআরআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]