‘দেশের রাজনীতি স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর কব্জায় চলে গেছে’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৪৪ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

দেশে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে রাজনীতি চর্চা হয় না। ফলে রাষ্ট্রের কোনো সরকারই সমালোচনা পছন্দ করে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ) চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) গুলশানে জেবেল রহমান গানির জন্মদিন উপলক্ষে নিজ দল ও বিভিন্ন দলের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানাতে গেলে তিনি এ কথা বলেন।

ন্যাপ চেয়ারম্যান বলেন, স্বৈরতান্ত্রিক সরকারগুলোর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক দলগুলো গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার প্রশ্নে জনসাধারণকে ঐক্যবদ্ধ করতে পারলেও, নিজেরা যখন দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পায়, তখন আর গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিকীকরণে কাজ করে না। ফলে রাজনীতি আজ পথহারা।

তিনি বলেন, একটি রাজনৈতিক দলের জন্য শুধু ক্ষমতায় যাওয়া অগ্রাধিকার হতে পারে না। তাদের অগ্রাধিকার হতে হবে জনগণের অধিকার ও মর্যাদার বিষয়ে আন্দোলন করা। বর্তমানে সে প্রক্রিয়া একেবারেই অনুপস্থিত। এখন ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় নেতাকর্মীরাও যেভাবে ‘ক্ষমতা’ প্রদর্শন করতে থাকে, তাতে সাধারণ মানুষের জীবন বিপর্যস্ত হয়ে যায়।

জেবেল রহমান গানি আরও বলেন, দেশের রাজনীতি আজ ক্ষমতাধর বিভিন্ন স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর কব্জায় চলে গেছে। দলীয় রাজনীতি ও নির্বাচনের প্রক্রিয়া কালো টাকা, দুর্নীতি, অপরাধ ও অগণতান্ত্রিকতায় জড়িয়ে পড়েছে। সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের কণ্ঠস্বর রাজনৈতিক দলগুলোতে স্থান পাচ্ছে না। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য আমাদের রাজনীতিতে সংস্কার আনতে হবে।

এ সময় বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন- এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, লেবার পার্টি চেয়ারম্যান হামদুল্লাহ আল মেহেদী, মহাসচিব আবদুল্লাহ আল মামুন, বাংলাদেশ ন্যাপ প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার মশিউর রহমান গানি, ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব মো. আতিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভূঁইয়া, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মো. আমজাদ হোসেন, নির্বাহী সদস্য মো. শামিম ভূঁইয়া, হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।

কেএইচ/জেডএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]