কুমিল্লার ঘটনায় সরকারকে দুষছেন রিজভী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩৩ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০২১

কুমিল্লার ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত এবং চক্রান্তমূলক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

তিনি বলেন, দেশের জনগণ, কোনো রাজনৈতিক দলই এই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে নাই। এগুলো করেছে এই সরকার।

শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ জাতীয় দলের উদ্যোগে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠায় নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, কুমিল্লার ঘটনা ঘটানোর কারণ হলো তাদের (আওয়ামী লীগের) ব্যর্থতা, গণতন্ত্রহীনতা, জোর জবরদস্তি ডাকাতের মতো করে ক্ষমতা দখল করে আছে। এখান থেকে বিশ্বে নিজের ভাবমূর্তি ভালো করার জন্য সরকার দেখাচ্ছে এই দেশে সাম্প্রদায়িক ঘটনা যাই হোক আমরা কঠোর হস্তে দমন করতে পারি।

তিনি বলেন, একটা কথা আছে সর্প হইয়া দংশন করি ওঝা হয়ে ঝাড়ি। আওয়ামী লীগ সরকার যারা অবৈধভাবে আছে তারা সেই কাজটি করছে। সর্প হইয়া দংশন করছে আবার ওঝা হয়ে ঝাড়ার চেষ্টা করছে। আর এইগুলো ঢাকতে গিয়ে কত মানুষের প্রাণ যাচ্ছে। রাজপথ রক্তে রঞ্জিত হচ্ছে।

বিএনপির এ নেতা বলেন, এশিয়ার মধ্যে চালের দাম এখন সবচাইতে বেশি বাংলাদেশে। পিঁয়াজ, মরিচ, তেল নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম হু হু করে বাড়ছে। আবার গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে। সুপেয় পানির দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এইযে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি এটা সরকারের নিয়ন্ত্রণের কথা দূরে থাক সিন্ডিকেট করে দাম বাড়াচ্ছে। কথা বলার অধিকার নাই। গণতন্ত্র নাই, ভোটের অধিকার নাই। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বাড়ছে। আর এটা থেকে দেশের জনগণের দৃষ্টি সরানোর জন্য কুমিল্লার ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

রিজভী বলেন, আমরা আগে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের কথা শুনি নাই। এই সরকারের আমলেই আমরা এই কথা শুনেছি।

তিনি বলেন, আমাদের দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের সকল সম্প্রদায় আমাদের অতীত ঐতিহ্য অনুযায়ী বন্ধুত্বের বন্ধনে থেকে যেকোন উস্কানি রুখবো। আমাদের দৃঢ় বন্ধন আমরা বজায় রাখবো। এই সরকারের উস্কানির মুখে আমরা কেউ কোনো প্রতিক্রিয়া দেখাবো না। কারণ আমাদের ইতিহাস ঐতিহ্য হচ্ছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের সভাপতি অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহসানুল হুদার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ প্রমুখ।

কেএইচ/কেএসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]