পকেট ভারী করতেই পণ্যের দাম বাড়িয়েছে সরকার: রিজভী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৯ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০২১

নিজেদের পকেট ভারী করতেই সরকার নিত্যপণ্যসহ সব দ্রব্যের দাম বাড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেছেন, ‘দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়বে না কেন? ওরা (সরকার) একটা বালিশের দাম নেয় ২২ হাজার টাকা। এসব দুর্নীতি এবং নিজেদের পকেট ভারী করতেই পণ্যের বাড়িয়েছে সরকার।’

শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ’-এ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘সয়াবিন তেল, কাচামরিচ, পেঁয়াজ, চালসহ সব দ্রব্যের দাম বাড়ছেই। এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশে চালের দাম সবচেয়ে বেশি। এটার বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে।’ব দ্রব্যের দাম বেড়েছে। এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশে চালের দাম সবচেয়ে বেশি। এটার বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে।’

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘আমি যে কথাগুলো বলছি, এটা বিএনপির কোনো বক্তব্য নয়। গণমাধ্যমগুলোতে সরকারের চাপের মুখেও সত্য কথা বেরিয়ে আসছে। পূজামণ্ডপে যে তাণ্ডব হয়েছে, এটি পরিকল্পিত; এ কথা আগেও আমরা বলেছি। সরকার নিজেদের স্বার্থের জন্য এ ঘটনা ঘটিয়েছে। কুমিল্লা, হাজীগঞ্জ, রংপুর, চট্টগ্রাম প্রতিটি জায়গায় সহিংসতায় আওয়ামী লীগ নিশ্চুপ ছিল।’

তিনি বলেন, ‘পত্র-পত্রিকায় আসছে ঘটনার দিন সকালে কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে ওসি সাহেব গেলেন, উনি পূজামণ্ডপ থেকে কোরআন শরিফ তুললেন, উনি কেনো এতক্ষণ মিডিয়ার সামনে ধরে রাখলেন? প্রত্যেকটাতে প্রমাণিত হয়, এটি পরিকল্পিত এবং গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ।’

মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব প্রমুখ।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম এতে সভাপতিত্ব করেন। সঞ্চালনায় ছিলেন সদস্যসচিব রফিকুল আলম মজনু।

কেএইচ/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]