সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের পেছনে কারা তা স্পষ্ট: শাজাহান খান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৮ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শ্রমিক নেতা শাজাহান খান বলেছেন, উগ্রবাদ ও সাম্প্রদায়িক উন্মাদনা সৃষ্টি করে দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চেষ্টায় কারা জড়িত, তা এখন মানু্ষের কাছে সুস্পষ্ট হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, যারা এই সরকারকে উৎখাত করতে চায়। যারা ধর্মের নামে উন্মাদনা সৃষ্টি করে দেশে অশান্তি সৃষ্টি করতে চায়, বাংলাদেশকে একটা অকার্যকর রাষ্ট্র হিসেবে পরিণত করতে চায়, তারাই রাষ্ট্রে এই পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ’ আয়োজিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শান্তি মিছিলে তিনি একথা বলেন।

শাজাহান খান বলেন, আমারা বীর মুক্তিযোদ্ধা, আমাদের দায়িত্ব আছে। আমরা যাদের দেশ ও জাতির অতন্দ্র প্রহরী বলে থাকি, যখনি বাংলাদেশ কোনো সংকটে পড়েছে, তখনি বাংলাদেশ শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবীর মধ্য দিয়ে এই বীর মুক্তিযোদ্ধারা রুখে দাঁড়িয়েছি। ২০১৩-১৪ সালে আমরা তা প্রমাণ করেছি।

sahjahan-2.jpg

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, আমরা এই শ্রমিকরা বাংলাদেশের যেকোনো সংকটে ভূমিকা রাখতে চাই। যারা মুক্তিযুদ্ধে দেশের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছিল, তারা এখনো চুপচাপ বসে নেই। তারা বারবার হানা দেওয়ার চেষ্টা করছে। আমরা পরিষ্কার বলতে চাই, এই বাংলাদেশ কোনো উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নয়, এই অপশক্তিকে রোধ করার জন্য শ্রমিক কর্মচারী বীর মুক্তিযোদ্ধারা এই বাংলাদেশকে রক্ষা করবে।

শাজাহান খান আরও বলেন, আমরা বলতে চাই, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলছে। শ্রমিকদের সমস্যা দূর হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বৃদ্ধি হচ্ছে। আমরা এই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধ শেখ হাসিনা সরকারের হাতকে আরও শক্তিশালী করার জন্য বুকে সাহস নিয়ে এগিয়ে যাবো।

বক্তব্য শেষে প্রেস ক্লাব চত্বর থেকে পল্টন মোড় পর্যন্ত শান্তি মিছিল হয়। এসময় বিভিন্ন পর্যায়ের শ্রমিক নেতা ও মুক্তিযোদ্ধারা অংশ নেন।

এমআইএস/কেএসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]