খালেদার আবারও রক্তক্ষরণ হয়েছে: ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২২ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২১

লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় আবারও রক্তক্ষরণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বেগম জিয়ার মুক্তি ও তার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে আয়োজিত বিভাগীয় সমাবেশে দেওয়া বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, গতকাল (সোমবার) সন্ধ্যায় এ জেড এম জাহিদ হোসেন (খালেদা জিয়ার চিকিৎসক দলের সদস্য ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান) আমাকে ফোন করে হাসপাতালে যেতে বললেন। গিয়ে দেখি বেগম জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের ১০ জন চিকিৎসক বসে আছেন। প্রত্যেকের মুখ অত্যন্ত চিন্তিত দেখাচ্ছিল। আমি ভেতরে ঢুকে তাদের জিজ্ঞাসা করলাম, কী হয়েছে। তারা বললেন, আমরা যেটা আশঙ্কা করেছিলাম, যেটা ভয় পাচ্ছিলাম...। সোমবার সন্ধ্যায় দেশনেত্রীর আবারও রক্তক্ষরণ হয়েছে।

আওয়ামী লীগের পতন শুরু হয়ে গেছে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হয়েছে। বেশিরভাগ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ হেরে গেছে। এ থেকেই প্রমাণ হয় যে, আওয়ামী লীগের পতন শুরু হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারকে বিভিন্ন দেশ থেকে চাপ দিয়েছে। সরকার মিথ্যা কথা বলছে।

সরকারের প্রতি ইঙ্গিত করে ফখরুল বলেন, আপনারা জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করছেন। আপনারা বলছেন, আইনি বাধার কারণে বেগম জিয়াকে বিদেশে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। আপনারা মিথ্যা কথা বলছেন। আইন অনুযায়ী বেগম জিয়াকে বিদেশে পাঠানো যায়। তার কিছু হলে আপনাদের (সরকার) কোনো দিনও মাফ করবে না দেশের জনগণ।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খান, বেগম সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান শাজাহান ওমর, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তৈমুর আলম খন্দকার, আবদুস সালাম ও যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

কেএইচ/এমকেআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]