ওবায়দুল কাদের নিজেকে দেশের সর্বশ্রেষ্ঠ সার্জন মনে করেন: রিজভী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০৪ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা ও চিকিৎসা নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের নেতা এবং সরকারের মন্ত্রীরা তাচ্ছিল্য করে বক্তব্য দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (এ্যাব) উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের নেতা এবং সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্য শুনলে মনে হয়,তারা প্রধানমন্ত্রীকে মনে করেন সবচেয়ে বড় মেডিসিনের ডাক্তার, ওবায়দুল কাদের নিজেকে মনে করেন বাংলাদেশের সর্বশ্রেষ্ঠ সার্জন আর হাছান মাহমুদ নিজেকে গ্যাস্ট্রোলজির বিখ্যাত অধ্যাপক মনে করেন।

রিজভী বলেন, বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা যদি এতই ভালো হয়, তাহলে চার্টার্ড বিমানে করে ওবায়দুল কাদেরকে কেন বিদেশ নেওয়া হয়েছিল?

বিএনপির এই নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী সম্রাটের মতো, সুলতানের মতো দেশ চালাচ্ছেন। তার মন্ত্রীরা আমিরের মতো চলেন। প্রধানমন্ত্রী যা বলেন, তার আমির-ওমরারা একই বুলি আওড়াতে থাকে। তিনি যা বলেন, তার মন্ত্রীরা আরও বাড়িয়ে বলেন।

রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার থেমে থেমে রক্তক্ষরণ হচ্ছে আর তারা বলছে দেশের ভেতরে চিকিৎসা সম্ভব। তাহলে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা কেন সিঙ্গাপুরে হলো? কেন বিমান চার্টার্ড করা হলো? এই ধরনের দ্বিচারিতার জন্য আপনাকে একদিন জবাব দিতে হবে ।

আইনমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, এদেশে বিচার বিভাগ কোথায় স্বাধীন? তারেক রহমানকে একজন বিচারক খালাস দেওয়ার কারণে তাকে দেশত্যাগে বাধ্য করা হয়েছে? তিনি তো বিচার বিশ্লেষণ করে নিরপেক্ষ রায় দিয়েছিলেন। আজকে সাবেক প্রধান বিচারপতিকে পিস্তল ঠেকিয়ে কেনো দেশ ছাড়া করলেন? এটা কোন আইন? কোন প্রক্রিয়ার কথা বলছেন? দেশের কোনো আইনে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য বাধা নেই।

প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও আসাদুজ্জামান চুন্নুর পরিচালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন এ্যাবের সেক্রেটারি প্রকৌশলী আলমগীর হাসিন আহমেদ, বিএনপির গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সেলিম ভুঁইয়া, বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী, সেক্রেটারি শহীদুল ইসলাম, প্রকৌশলী আব্দুল হালিম পাটোয়ারী, প্রকৌশলী মিয়া মো. কাইয়ুম, প্রকৌশলী মাহবুব আলম, রিয়াজ উদ্দিন ভুইয়া, প্রকৌশলী আসিফ হোসেন রচি, জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক জোটের রফিকুল ইসলাম।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন প্রকৌশলী মুহিত রুমি, হেলাল উদ্দিন তালুকদার, কামরুল হাসান সাইফুল, শফিউল আলম তালুকদার সবুজ প্রমুখ।

কেএইচ/এমএইচআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]