সরকার দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে: দুলু

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৮ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০২২
নিজ কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু

বর্তমান সরকার দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু।

তিনি বলেন, সরকার দেশের সব প্রতিষ্ঠানকে দলীয়করণ করে ধ্বংস করে দিয়েছে। বিরোধী দলকে দমন করতে, জনগণের মৌলিক অধিকার হরণ করতে প্রশাসনকে যথেচ্ছভাবে ব্যবহার করছে।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) রাজধানীর গুলশানে নিজ কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। নাটোর জেলার সদ্য কারামুক্ত নেতা-কর্মীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়ার জন্য তিনি এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, এই সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশকে, দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে। তাদের কারণেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি প্রতিষ্ঠানকে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আওতায় নেওয়া হয়েছে। সেখান থেকে শিক্ষা না নিয়ে এখনো র‌্যাব, পুলিশকে বিরোধী দল দমনে ব্যবহার করা হচ্ছে। কিন্তু এর পরিণতিও ভালো হবে না।

তিনি বলেন, তার নিজ জেলা নাটোরে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা দিয়ে, হামলা করে, মামলা করে নেতাকর্মীদের আটক করা হচ্ছে। গত নভেম্বরে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আয়োজিত সমাবেশকে কেন্দ্র করে পুলিশ নির্বিচারে নেতাকর্মীদের উপর হামলা করে অনেককে গ্রেফতার করে। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী গত মঙ্গলবার কারাগার থেকে মুক্তি পেলে আবারও গায়েবি মামলা দেওয়া হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। মামলা-হামলা-কারা নির্যাতন করে বিএনপিকে শেষ করে দেওয়ার জন্যই এসব নতুন নতুন মামলা দেওয়া হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এসব মামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে দুলু বলেন, হামলা-মামলা করে বিএনপিকে দামানো যাবে না। প্রস্তুত হোন, আন্দোলনের ডাক আসছে। সেই আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই ফ্যাসিবাদী সরকারের পতন ঘটানো হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শামসুল আলম রনি, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি খায়রুল ইসলাম আকাশ, বড়াইগ্রাম থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাহিদ হাসান বিপুল, সদস্য সচিব আরিফুল ইসলাম কানন প্রমুখ।

কেএইচ/কেএসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]