পদ্মা সেতু উদ্বোধন হওয়ায় বিএনপি নেতারা খুশি হননি: তথ্যমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৬ পিএম, ২৬ জুন ২০২২
তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ/ ফাইল ছবি

পদ্মা সেতু উদ্বোধন হওয়ায় বিএনপি নেতারা খুশি হননি উল্লেখ করে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনে অভিনন্দন জানাতে ব্যর্থ হওয়ার মাধ্যমে বিএনপি প্রমাণ করেছে পদ্মা সেতুর বিরুদ্ধে তারা ষড়যন্ত্র করেছিল। সেটি সঠিক বলে তারা স্বীকার করে নিয়েছে।

রোববার (২৬ জুন) সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজকে পদ্মা সেতু কখনো হতো না, যদি আমাদের একজন শেখ হাসিনা না থাকতেন। সব রক্তচক্ষু, ষড়যন্ত্র, প্রতিবন্ধকতাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানোর সৎ সাহস বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনারই আছে।

তিনি বলেন, যারা এক সময় সমালোচনা করেছিলেন, আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন এই পদ্মা সেতু নিজস্ব অর্থায়নে কখনো করা সম্ভব নয়, তারাও আজকে অনেকে প্রশংসা করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেছেন তারা। এখন জাতির এই সক্ষমতায় তারাও আনন্দিত।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যে বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু থেকে অর্থায়ন প্রত্যাহার করেছিল, সেই বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর গতকাল (২৫ জুন) শাড়ি পরে সেখানে গিয়েছিলেন। তার ড্রেস (জাতীয় পোশাক) কিন্তু শাড়ি নয়। তিনি শাড়ি পরে সেখানে গিয়েছিলেন, আমাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করার জন্য। সেটিও একটি কারণ বলে আমি মনে করি। তিনি ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধন হওয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অভিনন্দন জানিয়েছে। প্রতিবেশী ভারত অভিনন্দন জানিয়েছে। পাকিস্তান অভিনন্দন জানিয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য বিএনপি অভিনন্দন জানাতে পারেনি। এটি করার মাধ্যমে তারা প্রমাণ করেছেন, এই পদ্মা সেতু হওয়াতে সারাদেশের মানুষ উল্লসিত, আনন্দিত হলেও বিএনপি নেতারা খুশি হননি।

তিনি বলেন, তারা (বিএনপি নেতারা) অভিনন্দন জানাতে ব্যর্থ হয়ে প্রমাণ করেছেন পদ্মা সেতুর বিরুদ্ধে তারা যে ষড়যন্ত্র করেছিলেন, সেটি সঠিক বলে তারা স্বীকার করে নিয়েছেন। এরপরও এই পদ্মা সেতু সবার জন্য নির্মিত। প্রধানমন্ত্রী সবার জন্য নির্মাণ করেছেন।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পৃথিবীর বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় ফলাওভাবে প্রচারিত হয়েছে। জাতির সক্ষমতা প্রতীক, জাতির গর্বের প্রতীক হিসেবে এই পদ্মা সেতুকে স্থান করে নিয়েছে। এই গর্ব আমাদের সবার বলে উল্লেখ করেন ড. হাছান মাহমুদ।

এমএএস/কেএসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]