আইএমএফের ঋণ পেতেই জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি: গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫১ পিএম, ১০ আগস্ট ২০২২
জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সমাবেশ করে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে গণবিরোধী আখ্যায়িত করে বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট। আইএমএফের ঋণ পেতেই জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন সংগঠনটির নেতারা।

বুধবার (১০ আগস্ট) বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে এ কথা বলেন তারা। জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এ সমাবেশ করে সংগঠনটি।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় সাম্রাজ্যবাদীদের স্বার্থ রক্ষায় দেশি-বিদেশি ঋণ গ্রহণ করে মেগা প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এর মাধ্যমে অবাধ লুটপাটের মাধ্যমে জনজীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছে। মূলত আইএমএফের ঋণের শর্ত মেনে দেশ পরিচালনার মধ্যেই নিহিত আছে নয়া ঔপনিবেশিক দেশের সরকারের চরিত্র। এর আগে ইউরিয়া সার কেজিতে ৬ টাকা ও ওষুধের দাম ১৩২ শতাংশ পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। এছাড়াও মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘায়ের মতো জনজীবনকে কষাঘাত করছে দ্রব্যমূল্যের অব্যাহত ঊধ্র্বগতি।

তারা বলেন, তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে এরইমধ্যে গণপরিবহন ভাড়া বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও কৃষিতে উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি পাবে। জনজীবন ও জাতীয় জীবনের সব ক্ষেত্রেই এর প্রভাব পড়বে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমা সত্ত্বেও আইএমএফের ঋণের শর্ত পূরণে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান তারা। একই সঙ্গে লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে গণ আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

বক্তারা আরও বলেন, সাম্রাজ্যবাদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব ও বিশ্ব বাজার প্রভাব বলয় পুনর্বণ্টনের প্রতিযোগিতায় তেল ও খাদ্যকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। যা ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্য দিয়ে আরও প্রকটভাবে সামনে আসছে। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে শ্রমিক-কৃষক-জনগণের রাষ্ট্র, সরকার ও সংবিধান প্রতিষ্ঠার সংগ্রামকে বেগবান করার আহ্বান জানান তারা।

সংগঠনটির সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্তের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শ্যামল কুমার ভৌমিক, সহ-সভাপতি দলিলুর রহমান খান, কৃষক সংগ্রাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির, ঢাকা জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ হোটেল-রেস্টুরেন্ট-সুইটমিট ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

আরএসএম/কেএসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।