দেশের মানুষ শান্তিতে আছে: রেলমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫৩ পিএম, ১২ আগস্ট ২০২২
রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে এক আলোচনা সভায় রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন

দেশের মানুষ শান্তিতে আছে বলে উল্লেখ করেছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। তিনি বলেন, করোনা এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে অর্থনৈতিক অবস্থায় সারা বিশ্ব অস্বস্তিতে রয়েছে, শুধু বাংলাদেশ নয়। কিন্তু এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির জন্য একটি দল ষড়যন্ত্র করছে।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

রেলমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালে বৈজ্ঞানিক সমাজতন্ত্র তৈরি করে বঙ্গবন্ধু হত্যার ক্ষেত্র তৈরি করেছিলেন আ স ম আবদুর রবরা। গণতন্ত্র মঞ্চের নামে তারা আবারও ষড়যন্ত্র করছেন। ৭ দলীয় জোটের নামে তারা ও তাদের দোসররা এক হচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার পর বৈজ্ঞানিক সমাজতন্ত্রের নামে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিভক্ত করার চেষ্টা করা হয়েছে। পাটের গুদামে আগুন দেওয়া, গণবাহিনী প্রস্তুত, রেললাইন উপড়ে ফেলা, ঈদের ময়দানে গুলি করে সংসদ সদস্যকে হত্যা করে ক্ষেত্র প্রস্তুত করেছিলেন।

jagonews24

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, গণতন্ত্র মঞ্চের নামে আবার তিনি (রব) মাঠে আসছেন। এরা চিহ্নিত দেশের দুশমন। কাজেই এই বিষয়ে আমাদের সাবধান হওয়ার প্রয়োজন আছে।

বাংলাদেশ পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত ডিআইজি ও বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার প্রধান তদন্তকারী কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাহার আকন্দ বলেন, ২১শে আগস্টের সঙ্গে ১৫ আগস্টের সম্পর্ক রয়েছে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব ও রাজনীতিকে ধ্বংস করার জন্যই দুটি ঘটনা ঘটিয়েছে। তদন্তে যেসব বিষয় উঠে এসেছে সেখানে জবানবন্দিতে মোশতাক জিয়াদের সমর্থন ছিল।

মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়ের সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতাউর রহমান প্রধান, ড. মোহাম্মদ জাকেরুল আবেদীন, মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়ের বর্তমান সভাপতি মীর জাহিদ হাসান।

আরএসএম/জেডএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।