তথ্য অধিকার আইনকে অর্থহীন করতেই নানা কালাকানুন: ন্যাপ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

দেশে তথ্য অধিকার আইনের মতো জনমুখী আইনকে অর্থহীন করে দিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মতো কালাকানুন জারি করা হয় বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি।

আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষে বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, যে দেশে যত বেশি তথ্যের অবাধ প্রকাশ নিশ্চিত করা যায়, সে দেশে তত বেশি মানবাধিকার সুরক্ষা, সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব হয়।

তারা বলেন, বাংলাদেশে তথ্য অধিকার আইন প্রতিষ্ঠিত হলেও এখনো অনেক প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। অফিশিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের মতো আইনের মাধ্যমে দেশে ঔপনিবেশিক কালের গোপনীয়তার সংস্কৃতি এখনো সরকারের মধ্যে আছে। তথ্য অধিকার আইনের কারণে এটা বিলুপ্ত হওয়ার কথা ছিল।

নেতারা আরও বলেন, তথ্য অধিকার আইনের মাধ্যমে নাগরিকদের তথ্য পাওয়ার অধিকারের তাত্ত্বিক স্বীকৃতি অর্জিত হলেও আইনটির স্পিরিট বা মূল চেতনা আন্তরিক উপলব্ধিতে আসেনি। সে কারণেই তথ্য অধিকার আইন বাস্তব ক্ষেত্রে সব নাগরিকের তথ্য পাওয়ার অধিকার নিশ্চিত করতে পারছে না। তথ্য কমিশনও এ ক্ষেত্রে তার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে সক্ষম হচ্ছে না।

তারা বলেন, তথ্য অধিকার আইনের মূল উদ্দেশ্য নাগরিকদের ক্ষমতায়ন ঘটানো, সরকারের কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করা, দুর্নীতি প্রতিহত করা এবং রাজনৈতিক ব্যবস্থাটি যাতে জনগণের স্বার্থে কাজ করে তা নিশ্চিত করা। এ সবকিছুর জন্য প্রয়োজন সুস্থ গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার অনুকূল মানসিকতা।

কেএইচ/এমআইএইচএস/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।