বিএনপির সমাবেশে যারা বাধা দেবে, তাদের প্রতিরোধ করা হবে: খসরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:৫৩ এএম, ০১ অক্টোবর ২০২২
চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির প্রস্তুতি সভায় বক্তব্য দেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী

৮ অক্টোবর কেন্দ্রীয় ঘোষিত চট্টগ্রাম বিভাগীয় গণসমাবেশ সফল করতে জোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি। এ লক্ষ্যে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মহানগরীর কাজীর দেউরী এলাকার নাসিমন ভবনের দলীয় কার্যালয়ে প্রস্তুতি সভা করেছে বিএনপি নেতারা।

সভায় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বড় বড় সমাবেশে সরকার বাধা দেওয়ার সাহস করে না। ছোট ছোট সমাবেশে তারা বাধা দেয়। তাই বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে মাঠে নামতে হবে। বড় সমাবেশে যারা বাধা দেবে, তাদের প্রতিরোধের সম্মুখীন হতে হবে।

তিনি বলেন, কিছু কিছু আওয়ামী লীগ নেতা বলছেন- বিএনপি লাঠিসোঁটা নিয়ে বের হয়েছে। আপনারা অস্ত্র দিয়ে গুলি করে আমাদের কর্মীদের হত্যা করবেন, ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাবেন, অথচ আমরা নিজেদের রক্ষা করতে একটা লাঠিও রাখতে পারবো না?

আমীর খসরু বলেন, আমার সংবিধান আমাকে অধিকার দিয়েছে নিজেকে বাঁচানোর। আগামী ৮ অক্টোবর চট্টগ্রামের গণসমাবেশে লাঠির প্রয়োজন হবে না। লাখ লাখ মানুষ যখন নামবে, তখন যারা রাস্তায় আক্রমণ করেন, তারা এমনিতেই পালাবেন।

‘কয়েকবছর আগে পলোগ্রাউন্ডের সমাবেশে ২০ লাখ মানুষ জড় হয়েছিল। স্কুলের ছাত্ররা পর্যন্ত এসেছিল। এখন আমাদের আবার সেই পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। লাঠিসোঁটা তাদেরই প্রয়োজন, যাদের সঙ্গে জনগণ নেই।’

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মো. নাছির উদ্দিন বলেন, আমাদের তর্জন-গর্জনের দরকার হবে না। আমাদের গর্জন হবে কাজের মধ্যে দিয়ে। বেশি কথা বলে আন্দোলন এগিয়ে যাবে না, আমাদের আন্দোলন পরিকল্পিত। পরিকল্পিত আন্দোলনেই সরকারের পতন ঘটবে।

প্রস্তুতি সভায় সভাপতির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, আগামী ৮ অক্টোবর চট্টগ্রামের বিভাগীয় সমাবেশ হবে সবচেয়ে বড় গণসমাবেশ। এ সমাবেশ থেকেই শেখ হাসিনার পতন ঘণ্টা বেজে উঠবে। আমাদের কথা হবে কম, কাজ হবে বেশি। চট্টগ্রামের নেতারা যদি ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করেন, তাহলে এখান থেকেই সরকারের পতন শুরু হবে।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়কারী মাহবুবের রহমান শামীমের সঞ্চালনায় এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন-বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার, জয়নাল আবেদীন, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, জয়নাল আবেদীন ফারুক, ড. সুকোমল বড়ুয়া, এস এম ফজলুল হক, ড. মামুন আহমেদ, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন, উপজাতি বিষয়ক সম্পাদক ম্যা মা চিংসহ চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা।

ইকবাল হোসেন/এসএএইচ/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।