বিএনপির নেতৃত্বে আন্দোলন চান অলি আহমদ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৩ পিএম, ০৩ অক্টোবর ২০২২
সংবাদ সম্মেলনে অলি আহমদসহ অন্যরা

সরকার পতনের আন্দোলনে বিএনপির নেতৃত্ব চান অলি আহমদ।

সোমবার (৩ অক্টোবর) রাতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠকের পর লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) চেয়ারম্যান অলি আহমদ সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয়-ক্ষমতার বাইরে। ডিজেল, পেট্রল,অকটেনের দাম বৃদ্ধিতে সর্বত্র এর বিরূপ প্রভাব পড়েছে। মানুষ সুশাসন পাচ্ছে না, ন্যায়বিচার পাচ্ছে না। এসব সমস্যা থেকে বের হওয়ার জন্য, আজ যে মানবতাবিরোধী অপরাধগুলো হচ্ছে, আপনাদের ওপর আমাদের ওপর যে নির্যাতন হচ্ছে, এসব থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি এরই মধ্যে অত্যন্ত স্পষ্টভাষায় বলেছে, এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না।অতীতে যে কোনো সময়ে আমরা ভুল করেছি, যার কারণে আজ আমাদের খেসারত দিতে হচ্ছে। এবার আমরা সবাই সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এই সরকারের পদত্যাগ চাই। তাদের ক্ষমতা ছাড়তে হবে এবং সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে। নতুন সরকার আসবে, তারা প্রশাসনকে ঠিক করবে। মানুষ যখন প্রস্তুত হবে, প্রশাসন যখন প্রস্তুত হবে, জনগণ যখন ভোট দিতে পারবে নির্ভয়ে এবং উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হবে তখন।

এসময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের জন্য জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছি সেই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আজকে আমরা দেশের প্রবীণ জননেতা অলি সাহেবের নেতৃত্বে যে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি তাদের সঙ্গে দ্বিতীয় দফায় আলোচনা করেছি। এই দ্বিতীয় দফার আলোচনায় আমরা আন্দোলনের যে দাবিগুলো আছে তা নিয়ে কথা বলেছি। এই সরকারের পতনে আমরা একসঙ্গে আন্দোলনে একমত হয়েছি।

বিএনপি মহাসচিব দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানকে নিয়ে রাতে মহাখালী ডিওএইচএসে এলডিপির চেয়ারম্যান অলি আহমদের বাসায় যান। সংলাপে এলডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল আলম, নেয়ামূল বসির, আওরঙ্গজেব বেলাল ও সৈয়দ মাহবুব মোর্শেদ উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৬ জুন এলডিপির সঙ্গে প্রথম দফা সংলাপ করে বিএনপি।

কেএইচ/এমএইচআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।