সোহরাওয়ার্দীতে কোনো সমাবেশ করবো না: এ্যানী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৯ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২
শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী

বিএনপি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চায়নি বলে জানিয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির প্রচার সম্পাদক ও মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী। তিনি বলেন, আমরা সাফ জানিয়ে দিয়েছি সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অনিরাপদ। আমরা সেখানে কোনো সমাবেশ করবো না। সেটা আমাদের স্ট্যান্ড।

মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশের স্থান নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

এ্যানী বলেন, আমরা দায়িত্ব নিয়ে বলেছি, অতীতে বিএনপি অফিসের সামনে অনেক প্রোগ্রাম হয়েছে, মহাসমাবেশ হয়েছে। অফিসের সামনে আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে চাই।

ডিএমপি কমিশনার বলেছেন, রাস্তায় সমাবেশ দেবে না-এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ডিএমপির অনুরোধে আমরা পরবর্তীতে বলেছি যে, বিএনপির পার্টি অফিসের পাশে আরামবাগ আইডিয়াল স্কুলের সামনে যে স্থানটি রয়েছে, আশপাশে মাঠও আছে, আমাদের সমাবেশের দিনটি বন্ধের দিন, সেখানে আমরা প্রোগ্রাম করতে পারি বিকল্প হিসেবে। আমরা তাদের কাছে সেই সহযোগিতা কামনা করেছি। আমরা দৃঢ়ভাবে আশাবাদী তারা সেখানে আমাদের সহযোগিতা করবেন।

আরও পড়ুন: আরামবাগে রাস্তায় সমাবেশ করতে মৌখিক অনুমতি চেয়েছে বিএনপি

আরামবাগে যদি অনুমতি না দেয় ডিএমপি তখন কী করবেন- এমন প্রশ্নের জবাবে বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা তো রাজপথের লোক। সড়ক ছাড়া কোথায় করবো? আমরা রাজপথটাকে বেছে নিয়েছি। ইনশাআল্লাহ, আমাদের তারা রাজপথে প্রোগ্রাম করতে দিতে বাধ্য হবে। যদি তা না করে, তাহলে দায়-দায়িত্ব তাদের ওপরে বর্তায়। দায় তাদের নিতে হবে। নয়াপল্টন এরিয়াতেই আমাদের থাকতে হবে।

তিনি বলেন, এরই মধ্যে অনেকবার আমাদের কথাগুলো তুলে ধরেছি ডিএমপিতে, লিখিত আকারে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বাইরে নয়াপল্টনের সমাবেশ করবো, সেই অনুমতি চেয়েছি। এরপরও আমরা ডিএমপির সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি। আমরা বারবার বলেছি, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অনিরাপদ।

আরও পড়ুন: মাঠ ছাড়া রাস্তাঘাটে সমাবেশের অনুমতি পাবে না বিএনপি: ডিএমপি

ডিএমপি থেকে বলা হয়েছে উন্মুক্ত মাঠে অনুমতি দেবে, সেই মাঠটি কোথায়? এমন প্রশ্ন রেখে শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী বলেন, একটু দেখে দেন। আমরা তো কোনো উন্মুক্ত মাঠ দেখি না। কারণ সোহরাওয়ার্দী উদ্যান আর এখন উদ্যান নেই, এটি পার্কে পরিণত হয়েছে। আর সেখানে অনেক ধরনের ষড়যন্ত্র লুকায়িত আছে। এটা আমরা জানি-বুঝি। সেই কারণে আমরা মনে করছি এটি অনিরাপদ।

কেএইচ/ইএ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।