মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৪:৫৪ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৮
মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট

মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের উদ্যোগে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার রাজধানী কুয়ালালামপুরের স্তেপাকের ডানা কোটার এসএলকে ব্যাডমিন্টন মাঠে আয়োজিত এ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব এমএসকে শাহিন।

এছাড়া প্রোডাকশন হাউস এজিডি পিক্সার্সয়ের চেয়ারম্যান দাতু সেলিম উপস্থিত ছিলেন। ২৪ দলের অংশগ্রহণে প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে মালয়েশিয়ায় শুরু হওয়া ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ফ্রেন্ডস অব মুন্সিগঞ্জের আমান ও সুলায়মান।

সেমি-ফাইনাল ও ফাইনালে প্রথম রানার আপ হয়েছে এফটি ইউনাইটেড সিলেটের লায়েক ও খশরু এবং দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছে বিডি লায়ন্সের রিজভি ও জহিরুল।

অসাধারণ খেলে দর্শক, খেলোয়াড় ও আয়োজকদের বিচারে টুর্নামেন্টে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পান এফটি ইউনাইটেডের খশরু। প্রধান অতিথি এমএসকে শাহিন বলেন, প্রবাসে এ ধরনের আয়োজন সত্যিই প্রশংসনীয়। কিছু সময়ের জন্য আমি হারিয়ে গিয়েছিলাম কৈশরে। ভবিষ্যতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সম্পৃক্ত করে এ ধরনের আয়োজন নিয়ে সামনে আশারও পরামর্শ দেন হাইকমিশনের এ কর্মকর্তা।

Maleshia-2

আয়োজক প্রোডাকশন হাউস এজিডি পিক্সার্সের চেয়ারম্যান দাতু সেলিম বলেন, সবার সহযোগিতায় আমরা টুর্নামেন্টটি সফলভাবে শেষ করতে পেরে সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন আয়োজক। মালয়েশিয়ায় এই খেলার মাধ্যমে প্রবাসীদের মাঝে একে অন্যের সঙ্গে একটি সেতুবন্ধন তৈরির পাশাপাশি মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করারও ক্ষুদ্র প্রয়াস।

অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া প্রত্যেক খেলোয়াড়কে মেডেল দেয়া হয়। সেরা দর্শকের পুরস্কার পান দাতিন জেসমিন শেখ, আয়োজক হিসাবে এজিডি পিক্সার্সের চেয়ারম্যান দাতু সেলিমের হাতে পুরস্কার তুলে দেন হাইকমিশনের কর্মকর্তা এস কে শাহিন।

এছাড়া এজিডি পিক্সাসের পক্ষ থেকে কো-স্পন্সর এক্সট্রিম গ্রুপ, পোশাক কোম্পানি লিভিং আর্ট ও রেস্টুরেন্ট ফুড ভিলেজের কর্মকর্তাদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়।

ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সপরিবারে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি নেতা মকবুল হোসেন মুকুল, বাদলুর রহমান খান, মাহবুব আলম শাহ, শাহিন সরদার, মানসুর আল বাসার সোহেল, ব্রাউন সোহেল, অলিউর রহমান আলো, মেঘনা-দাউদকান্দি ইয়ুথ কমিউনিটির সভাপতি জালাল উদ্দিন সেলিম, যশোর সমিতির সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, কোতারায়া বিজনেস কমিউনিটির সভাপতি রাশেদ বাদল, সাধারণ সম্পাদক এস কে নিপু, এক্সট্রিম গ্রুপের চেয়ারম্যান মহসিন শিকদার পাভেল, সিইও শরিফুল ইসলাম থিংকু, ফুড ভিলেজ রেস্টুরেন্টের স্বত্বাধিকারী এস কে সেন্টুসহ অনেকে।

এমআরএম/পিআর

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com