নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনসাল জেনারেলকে বিদায় সংবর্ধনা

কৌশলী ইমা কৌশলী ইমা , নিউইয়র্ক প্রতিনিধি নিউইয়র্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫৪ এএম, ২৩ মে ২০১৮

নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল শামীম আহসানকে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বাংলাদেশ কনস্যুলেটে এ বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক, মূলধারার রাজনীতিক, মুক্তিযোদ্ধা, গণমাধ্যমকর্মী ইউএস সিভিল সোসাইটি, কনস্যুলেট ও জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনের কর্মকর্তা, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দসহ নানা শ্রেণি পেশার প্রবাসী বাংলাদেশিরা যোগ দেন।

অনুষ্ঠানে শামীম আহসানকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান প্রবাসীরা। আর তাকে একজন সফল কূটনীতিক হিসেবে অভিহিত করে অভিনন্দন বার্তা পাঠিয়েছেন নিউইয়র্ক সিটি মেয়র বিল ডি ব্লাজিও।

শামীম আহসান তার বক্তব্যে বাংলাদেশের দ্রুত এগিয়ে যাওয়ার পেছনে প্রবাসীদের বলিষ্ঠ ভূমিকার কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, সর্বস্তরের প্রবাসীদের আন্তরিক সহযোগিতাই তার কাজকে সহজ করে দিয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন, ভারত, নেপাল, লিথুয়ানিয়া, সৌদি আরব, বেলারুশ, কাজাখিস্তান ও গায়ানার কনসাল জেনারেল, নেপালের ডেপুটি কনসাল জেনারেল, পাকিস্তান ও নাইজেরিয়ার কনসাল, শ্রীলংকার ডেপুটি পার্লামেন্টের প্রতিনিধি, যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের নর্দার্ন এরিয়া ডিরেক্টর ব্রুক কবেল, ফরেন প্রেস সেন্টারের ডিরেক্টর ক্যাথেলেন ইগান, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠযোদ্ধা রথীন্দ্রনাথ রায়, শহীদ হাসান ও কাদেরী কিবরিয়া প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল মো. শামীম আহসান, তার সহধর্মিণী পেন্ডোরা চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের ফরেন প্রেস সেন্টারের ডিরেক্টর ক্যাথেলেন ইগান, নিউইয়র্কে ভারতের কনসাল জেনারেল, নাইজেরিয়ার কনসাল জেনারেল বক্তব্য দেন।

উল্লেখ্য, শামীম আহসানই একমাত্র বাংলাদেশি কূটনীতিক যিনি একটানা চার বছর নিউইয়র্কে কনসাল জেনারেলের দায়িত্ব পালন করেছেন এবং প্রবাসীদের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক বিদায় নিলেন। সম্প্রতি তাকে পদোন্নতি দিয়ে নাইজেরিয়ায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। শিগগিরই তিনি সেখানে যোগ দেবেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক সাদিয়া ফয়জুন্নেছা নিউইয়র্কে তার স্থলাভিষক্ত হবেন।

এমএমজেড/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :