আমিরাতে পাঁচ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক

মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন
মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন , আমিরাত প্রতিনিধি সংযুক্ত আরব আমিরাত
প্রকাশিত: ০৪:৫৭ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
প্রতীকী ছবি

সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহে সম্প্রতি অবৈধভাবে টাকা হস্তান্তরের সাথে জড়িত ৫টি মোবাইলের দোকান চিহ্নিত করে মালিকদের আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ। সিভিল পুলিশ বিশেষ সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

এছাড়া আরও একাধিক মোবাইলে দোকান, কাপড়ের দোকান ও গ্রোসারি নজরদারিতে রয়েছে। বিশেষ প্রযুক্তির মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটস অ্যাপে নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

আমিরাত থেকে বাংলাদেশসহ বেশকিছু দেশের প্রবাসীরা হুন্ডির মাধ্যমে নিয়মিত পরিবারের কাছে টাকা পাঠাচ্ছে। অবৈধভাবে বিকাশসহ বিভিন্ন মাধ্যমে হুন্ডি করার অভিযোগ এনে সেইসব ব্যবসায়ীদের চিহ্নিত করে মানি লন্ডারিং আইনে বিচারের আওতায় আনার পদক্ষেপ নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

আদালতের মাধ্যমে সেসব দোকান মালিকদের অবৈধ ব্যবসা চালানোর দায়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলেও জানান স্থানীয় প্রশাসন। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, ইথুপিয়া এবং সুদান এর প্রবাসীরা হুন্ডি ব্যবসায় জড়িত বলে শারজাহ পুলিশ জানিয়েছে। তদন্তের স্বার্থে আটকদের পরিচয় জানায়নি দেশটির পুলিশ।

হুন্ডি মাধ্যমে শুধু টাকা পাঠানো নয় কালো টাকা সাদা করার সাথে বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা জড়িত হওয়ার খবর সংবাদ মাধ্যমে উঠে এসেছে।

বৈধভাবে টাকা পাচারের কারণে আমিরাতের অর্থনীতিতে প্রভাব না ফেলার আগেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। দেশটির ব্যাংক ও এক্সচেঞ্জগুলো হুন্ডি ব্যবসায়ীদের কারণে বাধাগ্রস্ত। এছাড়া অবৈধভাবে যেই দেশে টাকা পাঠানো হচ্ছে সেসব দেশ রেমিট্যান্স থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]