ইতালির নাপলিতে প্রবাসীদের ১৩ দফা দাবি

জমির হোসেন
জমির হোসেন জমির হোসেন , ইতালি প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৫:০৩ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ইতালির নাপলিতে বিভিন্ন দেশের প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ অ্যাসোসিশন নাপলির আয়োজনে ১৩ দফা দাবি আদায়ের জন্য বিক্ষোভ মিছিল, প্রতিবাদ সভা করা হয়েছে। এ ছাড়া জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

২০ সেপ্টেম্বর সকালে নাপলির বিভিন্ন কাম্পানিয়া থেকে হাজার হাজার প্রবাসীরা নাপলি সিটিতে জমায়েত হয়ে তাদের দাবি জানান। দাবিগুলো তুলে ধরা হলো-

পালমা কাম্পানিয়ায় ঈদ ও জুম্মার নামাজের অনুমতি, অবৈধ প্রবাসীদের বৈধকরণ, ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত জটিলতা নিরসন, বিভিন্ন স্থানে বাঙালিদের উপর হামলা বন্ধ করা, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সালভেনি কর্তৃক প্রবাসী বিরোধী আইন বাতিল করাসহ ১৩ দফা দাবি আদায়ের জন্য মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করে।

মিছিলটি নাপলির গারিবালদি থেকে শুরু হয়ে ভিয়া রোমায় গিয়ে সমাবেশ, সভা ও জেলা প্রসাশক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন। এ সময় বক্তব্য দেন- সি.জি.এল ইমিগ্রেশনের প্রধান জামাল কোয়ানদ্রো, মানবাধিকার সংগঠন তেরে ফেব্রাইয়ো সংগঠনের প্রধান জাল্লুকা প্রেতুন্স, সেনেগাল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান কস্তাবিয়ালো, নাপলি কমুনির এক্সসাইও লাউরা মোরমোরালে, নিরাপত্তা প্রেসিডেন্ট প্রোফেসর ফ্রান্সিসকো বেরলত্তি,
মানবাধিকার সংগঠন ইউরেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন নাপলির সমন্বয়ক সৈয়দ রাজিব, নাপলির সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি গোলাম আক্তার লিটন।

italy

আরও বক্তব্য দেন- শরীয়তপুর অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মিজানুর রহমান বাচ্চু, বৃহত্তর খুলনা কল্যাণ সমিতির সভাপতি বশির আহম্মেদ, সহ-সভাপতি শাহজাহান হাওলাদার চুন্নু, নাপলি আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শেখ জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক গউস উদ্দিন, বরিশাল কল্যাণ সমিতির উপদেষ্টা মোরশেদ আলম, কমিউনিটি নেতা মৃদুল দেওয়ান, বাবলু রহমান, মাহবুবুল আলম মামুন আব্বাস উদ্দিন মিলন, সানজন্নারো আওয়ামী লীগের সভাপতি মোশারেফ খলিফা, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, নাপলি মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সভাপতি এনামুল হক বাদল প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, প্রবাসীদের ১৩ দফা ন্যায্য দাবি না মানা হলে পরবর্তীতে বড় ধরনের আন্দোলনের ঘোষণা দেয়া হবে। পরে জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হলে তিনি দ্রুত দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস দেন।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]