প্রবাসবান্ধব দেশের তালিকায় শীর্ষে ওমান

বাইজিদ আল-হাসান
বাইজিদ আল-হাসান বাইজিদ আল-হাসান , ওমান প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০১:৪৬ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৯

বিদেশি নাগরিকদের সবচেয়ে বেশি স্বাগত জানানো দেশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ওমান। ওমান প্রবাসীদের বসবাস ও কাজ করার জন্য নিরাপদ দেশের তালিকার শীর্ষে ওমান।

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘এক্সপার্ট ইনসাইডার’ তাদের রিপোর্টে এমনই তথ্য জানিয়েছে। একটি দেশের সামগ্রিকভাবে জীবনযাত্রার মানের দিক বিবেচনা করে এই র‌্যাঙ্ক দিয়ে থাকে প্রতিষ্ঠানটি। বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ দেশের তালিকায় ওমানের নাম এক নম্বরে রয়েছে।

একটি দেশের জীবনমানের সাতটি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে এই রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে- জীবনমানের উন্নয়ন, অবসর বিকল্প, সুখ, ভ্রমণ এবং যাতায়াত ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য এবং সুস্থতা, নিরাপত্তা ব্যবস্থা, প্রযুক্তি। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে যখন সুরক্ষা বিবেচনা করা হয়, তখন ওমানের পাশাপাশি শীর্ষ দশে কেবলমাত্র সংযুক্ত আরব আমিরাত (৬ষ্ঠ অবস্থানে) রয়েছে। কাতার ১১তম, বাহরাইন ২০ ও কুয়েত ৪৬তম।

‘ইন্টারন্যাশনাল এক্সপার্ট ইনসাইডারের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও ফিলিপ ফন প্লাটো বলেন, লাইফ ইনডেক্সজুড়ে বেশিরভাগ জিসিসি রাজ্য স্বতন্ত্র গড় ফলাফল দেয়, সংযুক্ত আরব আমিরাত ৬৪টি দেশের মধ্যে ২১তম স্থানে রয়েছে।’

ফিলিপ ফন প্লাটো বলেন, ব্যতিক্রম কুয়েত, যা দশের নীচে র‌্যাঙ্ক করে চলেছে। তবে ওমান সুরক্ষার জন্য এক অনন্য ফলাফলের গৌরব অর্জন করেছে, বিশ্বব্যাপী এক নম্বরেই জায়গা করে নিয়েছে ওমান।

সামগ্রিকভাবে, মেক্সিকোকে বসতি স্থাপনের সবচেয়ে সহজ দেশ হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছিল, তার পরে বাহরাইন, মালয়েশিয়া, পর্তুগাল এবং ফিলিপাইন রয়েছে এবং সুলতানাত অব ওমানকে উচ্চ পদমর্যাদার সাথে তুলনা করা হয়েছে।

প্রবাসী সন্দীপ কুমার বলেন, সন্দেহ নেই যে ওমান বিশ্বের অন্যতম নিরাপদ দেশ, এবং মেরিপাজ চেলোসো যোগ করেছেন, এটি সত্যিই একটি শান্তিপূর্ণ দেশ। আমি ওমানকে ভালোবাসি।

প্রবাসী বাংলাদেশি ইয়াসিন চৌধুরী বলেন ওমানে আসলেই অনেক শান্তিপ্রিয় একটি দেশ, সেইসাথে নিরাপত্তার দিক থেকে অতুলনীয় একটি দেশ ওমান। অপরদিকে কেএন শমির বলেছিলেন, এটি শতভাগ সত্য, আমি দৃঢ়ভাবে এরসাথে একমত।

শ্রীনিবাস কৃষ্ণ বলেন, ওমানকে বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন দেশগুলোর মধ্যে রাখার জন্য সুলতান কাবুস বিন সাইদকে দীর্ঘজীবী করুন।

ফরাসী জাতীয় ড্যানিয়েল প্লেআউট বলেন, আমার মেয়ে ওমানে বাস করে এবং আমরা মনে করি এটি দুর্দান্ত লোকদের সাথে একটি দুর্দান্ত দেশ, অ্যান্ড্রু হল যোগ করেছেন, আমি এর সাথে একমত আমরা কখনই অনিরাপদ বোধ করিনি।

এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com