অস্ট্রেলিয়ায় আহসানউল্লাহর সাবেক শিক্ষার্থীদের মিলনমেলা

মো. আবুল কালাম আজাদ
মো. আবুল কালাম আজাদ মো. আবুল কালাম আজাদ , অস্ট্রেলিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৯:৪২ এএম, ০৭ নভেম্বর ২০১৯

উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সিডনিতে বসবাসরত আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা আউস্ট অ্যালামনাইয়ের গালা নাইটের আয়োজন করে। দেশটির ওয়েন্টওয়ার্থভিল রেডগাম ফাংশন সেন্টারে শিক্ষার্থীরা এ উৎসবে একে অপরের সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে নেয় কয়েক মুহূর্তের জন্য।

এ সময় ক্যাম্পাস জীবনের অসংখ্য স্মৃতিচারণ করে তারা। স্মৃতিচারণে সহপাঠীদের সঙ্গে মাতেন গল্প, আড্ডা আর গানে। খুঁজে পান ক্যাম্পাস জীবনের সেই উচ্ছ্বল, বাধাহীন, তারুণ্য ও যৌবনের ছোটগল্পগুলো।

অনুষ্ঠানের শুরুতে সমবেত কণ্ঠে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার জাতীয়সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। বুয়েটে নিহত ছাত্র আবরার ও অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে নিহত শহীদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

আয়োজক কমিটির মধ্যে ছিলেন দেবানন, নাদিম, শায়ের, অপু, চিশতী, হাসিব ও শুভ। মিলনমেলার জন্য একটি ম্যাগাজিন প্রকাশ করেছিলেন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনের দায়িত্বে ছিলেন সাইফুর রহমান অপু।

Austrelia

বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন আউস্টের প্রাক্তন শিক্ষার্থী হাসিব জামান, আল এমরান নিক্কন, তামিমা, মিতু এবং সিডনির প্রখ্যাত ব্যান্ড ’ট্রিও’। এ ছাড়াও সকল প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীদের সমবেত কণ্ঠে পরিবেশিত হয় ‘পুরানো সেই দিনের কথা’ গানটি ।

সিডনি ছাড়াও ক্যানবেরা, মেলবোর্ন, ব্রিসবেন ও এডিলেড থেকেও প্রাক্তন অস্টিয়ানরা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এ ছাড়াও সুদূর কানাডা, যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশ থেকেও আউস্টের কিছু প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। আরও উপস্থিত ছিলেন আহসানউল্লাহ বিশ্ব: প্রাক্তন শিক্ষক ও অস্ট্রেলিয়ার বর্তমানে চার্লস স্টুার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মনোরঞ্জন পল।

আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এক্স-আউস্ট) প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের নিয়ে সিডনিতে প্রথমবার অনুষ্ঠানটি করেন এবং এখন থেকে তারা নিয়মিতভাবে প্রতি বছর মিলনমেলার আয়োজন করবে। এই অনুষ্ঠানে স্পন্সরদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। নৈশভোজ পর আয়োজকরা ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]