সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেস্টিভ্যাল সম্পন্ন

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২২ এএম, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

কবি ও লেখকদের নিয়ে এশিয়ার সবচেয়ে বড় ও সম্মানজনক অনুষ্ঠান সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেস্টিভ্যাল শেষ হয়েছে। প্রায় ২০টি দেশের লেখকদের অংশগ্রহণে সপ্তাহব্যাপী জমজমাট এই অনুষ্ঠান ছিল প্রাণবন্ত ও উৎসবমুখর।

১লা নভেম্বর এই অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এবারের সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেসটিভ্যলের উদ্বোধন করা হয়। সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেসটিভ্যাল অনু্ষ্ঠিত হয় আর্ট হাউজ, ন্যাশনাল গ্যালারিসহ আরও একাধিক ভেন্যুতে।

Festival

‘স্পট লাইট অব মাইগ্রেন্ট ভয়েস’ শিরোনামে বিভিন্ন দেশের অভিবাসী ট্যালেন্ট অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে বাংলাদেশি অভিবাসীদের মাইগ্রেন্ট ব্যান্ড ও কবি রিপন চৌধুরী অংশগ্রহণ করেন।

মাইগ্রেন্ট ব্যান্ড পরিবেশিত গান শুনে উপস্থিত দর্শকরা বিমোহিত হন। কবি রিপন চৌধুরীর কবিতা আবৃত্তি শুনে উপস্থিত দর্শকরা চিরকুট লিখে রিপন চৌধুরীকে অভিবাদন জানান। এক দর্শক বলেন, ‘তোমার কবিতা আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেল। লেখা থামিও না এভাবেই লিখে যাও।’

এ ছাড়া ‘হয়েন ল্যাংগুয়েজ হেল্পস অ্যান্ড হার্টস ও দ্য স্পেসেস বিটুয়েন’ শিরোনামে দুটি দলীয় প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন কবি ও লেখক জাকির হোসেন খোকন।

Festival

ফেস্টিভ্যালে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে রিপন চৌধুরী বলেন, ‘রাইটার্স ফেস্টিভ্যালে অভিবাসীদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে স্থানীয় ও অভিবাসীদের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরি হলো। আমাদের এই সেতুবন্ধন অভিবাসীদের সাহিত্যকর্মে অনুপ্রাণিত করবে। আমাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য আয়োজক কমিটি ও শিবাজী দাশকে আন্তরিক ধন্যবাদ।’

রাইটার্স ফেস্টিভ্যালের অংশ হিসেবে মিউজিক পরিবেশন করে মাইগ্রেন্ট ব্যান্ড সিঙ্গাপুর। এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাইগ্রেন্ট ব্যান্ডের কর্ণধার নীল সাগর শাহিন বলেন, ‘রাইটার্স ফেস্টিভ্যালে আমাদের দল অংশগ্রহণ করতে পেরে আমরা মাইগ্রেন্ট ব্যান্ডের সকলে আনন্দিত। আমাদেরকে এমন সুন্দর একটি সুযোগ করে দেবার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ।’

প্রবাসী কবি জাকির হোসেন খোকন বলেন, ‘সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেস্টিভ্যালে আমি দুটি আলোচনা প্যানেলে অংশগ্রহণ করেছি। রাইটার্স ফেস্টিভ্যাল হলো সিঙ্গাপুরের সবচেয়ে বড় সাহিত্য উৎসব তাই এই উৎসবে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি আনন্দিত। আমি চাই সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেস্টিভ্যালে অভিবাসী সাহিত্যিকদের অংশগ্রহণ আরো মুখরিত হোক। সিঙ্গাপুরের সাহিত্য সমৃদ্ধির একটি অংশ হোক অভিবাসীদের সাহিত্য। আমাকে আলোচনা প্যানেলে আমন্ত্রণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ।’

সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেস্টিভ্যাল সম্পন্ন

উল্লেখ্য, ২০১৫ সাল থেকে সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেসটিভ্যালে অভিবাসী লেখক ও কবিরা অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ পাচ্ছেন। এর আগে কবি মুকুল হোসেন এবং লেখক ও কবি শরীফ উদ্দিন সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেসটিভ্যালে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত অভিবাসীরা তাদের সাহিত্যকর্ম দিয়ে দেশটির সাহিত্য জগতে অবদান রাখছেন, তারই পুরস্কার স্বরূপ প্রতিবছর অভিবাসী সাহিত্যিকদের সিঙ্গাপুর রাইটার্স ফেসটিভ্যালে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

ওমর ফারুকী শিপন/সিঙ্গাপুর প্রবাসী/এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com