যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৫ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে এক বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সময় ১৮ আগস্ট দুপুরে শহরের ১২৮ নম্বর মারিপোসা সড়কের একটি অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ১৮ বছরের তরুণ ফারহান পাশার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই অ্যাপার্টমেন্টের তিন তলায় মা ফাতেমা জোহরা রিপা ও অসুস্থ নানার সঙ্গে থাকতেন ফারহান। ফারহান পাশা এ বছর ক্যালিফোর্নিয়ার রিভারসাইড বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষে ভর্তি হয়েছিল।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ফারহান পাশার মা দুপুর ১২টার দিকে কাজ থেকে বাসায় ফিরে ফারহানের কক্ষে কোনো শব্দ না পেয়ে দরজা খুলে নিথর দেহ দেখতে পান এবং পাশের ভবনের মাসুদ ও তার স্ত্রীকে ফোন করেন।

জরুরি নম্বরে ফোন করলে ফায়ার ডিপার্টমেন্ট, মেডিকেল টিম ও পুলিশ এসে ফারহানের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়। পুলিশ এ সময় মৃতের কক্ষ থেকে কিছু আলামতও সংগ্রহ করে নিয়ে যায়। ওই কক্ষে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। এমনকি স্বজনদের কাউকে মরদেহও দেখতে দেয়নি। ছেলের মৃত্যুতে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন মা ফাতেমা জোহরা রিপা।

প্রতিবেশী ও স্বজনদের অনেকেই বিষণ্নতার কারণে ফারহান আত্মহত্যা করতে পারেন মর্মে ঘটনার বর্ণনা করলেও পুলিশি তদন্ত প্রতিবেদন ছাড়া মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে কিছুই বলা যাচ্ছে না। ফারহান শান্ত স্বভাবের ছিল। সে খুব একটা বেশি বাইরেও বের হত না বলে তারা জানিয়েছেন।

ভাইয়ের আবেদনে ইমিগ্রান্ট হয়ে ফাতেমা জোহোরা রিপা দুই সন্তান ফাতিন পাশা (২২) ও ফারহান পাশাকে (১৮) নিয়ে গত সাত বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে বাস করছেন। বড় ছেলে ফাতিন পাশা ক্যালিফোর্নিয়ার স্যান্ডিয়াগো বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার সাইন্স নিয়ে পড়াশোনা করছে।

ফারহানের বাবা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) জগলুল পাশা চাকরির কারণে দেশেই থেকে যান। সম্প্রতি তিনি অবসর নেন। ফারহানের বাবার নিজ বাড়ি রাজবাড়ী জেলার পাংশার খামারডাঙ্গায়।

এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]