স্পেনে পাঁচ দফা দাবিতে অভিবাসীদের বিক্ষোভ

কবির আল মাহমুদ
কবির আল মাহমুদ কবির আল মাহমুদ স্পেন
প্রকাশিত: ১১:৪৯ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

স্পেনের মাদ্রিদে পাঁচ দফা দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন ও অভিবাসীরা। ২৪ সেপ্টেম্বর দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের বাঙালি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের সেন্ট্রো সালুদের (সরকারি মেডিকেল) সামনে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে স্পেন, বাংলাদেশ, মরক্কো, আফ্রিকা, সেনেগালসহ বিভিন্ন দেশের প্রবাসী অভিবাসীরা অংশ নেন। বাংলাদেশি মানবাধিকার সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন দে ভালিয়েন্তে বাংলা ও স্প্যানিশ কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন যথাক্রমে রেড ইন্টার লাভাপিয়েস, পা লাভাপিয়েস, মাদ্রিদ দিয়ে লাভাপিয়েস, মার্কাপিয়েস, তাবাকালেরা তেরতেরিরিও ডোমেস্টিকো, সেন্ডেদাদো কুইদাদো, সিদিকাতো মানতেরো, আসওয় দে সেনেগালেস, বেসিনো দে লাভাপিয়েস এবং রেড সলিদারিদাদের আমন্ত্রণে পাঁচ দফা দাবি সংবলিত ব্যানার নিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এতে অংশগ্রহণ করেন।

তাদের দাবিগুলো হলো- স্বাস্থ্য সেবা সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া, মেডিক্যালগুলোতে পর্যাপ্ত চিকিৎসক নিয়োগ প্রদান করা, সকল অভিবাসীদের জন্য ফ্রি দোভাষীর ব্যবস্থা, বিনামূল্যে সবার জন্য করোনা টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করা এবং অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ফ্রি মেডিকেল কার্ড প্রদান করে স্বাস্থ্য সেবা বৃদ্ধি করা।

বাংলাদেশি মানবাধিকার সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন দে ভালিয়েন্তে বাংলার সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিনের উপস্থাপনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন মাদ্রিদ সিটি কর্পোরেশনের সাবেক ডেপুটি মেয়র কউন্সিলর খরখে গ্রাসিয়া কাস্তিয়ানো, কমিউনিটি নেতা রুবেল সামাদ, অ্যাসোসিয়েশন দে ভালিয়েন্তে বাংলার সদস্য জুলহাস উদ্দিন, আলামীন পালোয়ান, শাহ আলম, আবুল কালাম, সিদ্দিকুর রহমান, এখলাস উদ্দিন, অকসুদ মিয়া, মিফতি, নাসিরসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা।

সভায় বক্তারা বললেন, করোনা মোকাবিলায় রোগীর চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার জন্য জরুরি ভিত্তিতে পর্যাপ্ত ডাক্তার এবং নার্স নিয়োগ দিতে সরকারের প্রতি দাবি জানান। এছাড়া স্পেনে যেসব অবৈধ অভিবাসীর বৈধ কাগজ নেই, তারা প্রতিনিয়ত ভালো কাজ এবং স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হন। স্পেনে অবৈধ অভিবাসীদের এসব ন্যায্য দাবিগুলো এখনও পূরণ হয়নি।

তারা বলেন, এখনও অবৈধ অভিবাসীরা বিভিন্নভাবে শোষিত হচ্ছে। লিগ্যাল দাবি পূরণ করার জন্যই এই সংকটময় মুহূর্তেও আমরা রাজপথে নেমেছি।এ সময় তারা, করোনা ভ্যাকসিন সবার জন্য ফ্রি ব্যবস্থা করার ও দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত এক সপ্তাহে স্পেনে ৩১ হাজার ৪২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে এক তৃতীয়াংশেরও বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে মাদ্রিদ অঞ্চলে। স্পেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সালভাদর ইয়্যা ২২ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মাদ্রিদবাসীকে একান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী দেশটিতে মার্চ মাসে করোনা মহামারি শুরুর পর এখন পর্যন্ত ৬ লাখ ৭১ হাজার ৫০০ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৩০ হাজার ৬৬৩ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে দেশটির আঞ্চলিক সরকারগুলো পৃথকভাবে নানা বিধিনিষেধ জারিও করেছে।

মাদ্রিদের বাংলাদেশি মানবাধিকার সংস্থা ‘ভালিয়ান্তে বাংলা’ দাবি করেছে যে তাদের কাছে তথ্য রয়েছে- এখন পর্যন্ত পুরো স্পেনে এক হাজারের উপর প্রবাসী বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কিংবা নিজ গৃহে আইসোলেশনে আছেন।

এর মধ্যে দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালে ৪৭ জন প্রবাসী বাংলাদেশি সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় আইসিইউতে আছেন বলেও জানিয়েছেন ‘ভালিয়ান্তে বাংলা’ এর সভাপতি মো. ফজলে এলাহী, যিনি নিজেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিজ ঘরে আইসোলেশনে আছেন।

এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]