আশ্রয়প্রার্থীদের সুখবর দিল আয়ারল্যান্ড

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

সৈয়দ আতিকুর রব, আয়ারল্যান্ড থেকে

শরণার্থীদের জন্য নতুন আইন করেছে আয়ারল্যান্ড সরকার। আইন অনুযায়ী শরণার্থী হিসেবে আশ্রয়ের আবেদন করার ছয়মাস পর থেকেই তারা কাজের অনুমতির আবেদন করতে পারবে।

দেশটির বিচার বিভাগ সম্প্রতি নতুন এই আইন করেছে। তবে এই সময়সীমা কমিয়ে তিনমাস করার দাবিতে অটল রয়েছে শরণার্থীদের অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলো। আগে আশ্রয়প্রার্থীদের কাজের অনুমতির আবেদন করতে ন্যূনতম নয় মাস অপেক্ষা করতে হতো।

এছাড়া কাজের ক্ষেত্রে আশ্রয় প্রার্থীদের ছয় মাসের যে অনুমতি দেয়া হতো সেটি বাড়িয়ে এক বছর করা হয়েছে নতুন এই আইনে। ইউরোপের এই দেশটিতে ২০১৮ সাল পর্যন্ত শরণার্থীরা কাজের অনুমতি পেত না। ওই বছর তাদের কাজের অনুমতি দিয়ে একটি আইন পাস করে আইরিশ সরকার।

এরপর থেকে সরকারি চাকুরি, প্রতিরক্ষাবাহিনী, পুলিশসহ কয়েকটি সেক্টর বাদে অন্যত্র কাজের সুযোগ পায় শরণার্থীরা। এর আগে শরণার্থীদের কাজের ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল দেশটিতে; কিন্তু আইরিশ সুপ্রিম কোর্ট এই নিষেধাজ্ঞাকে অসাংবিধানিক সাব্যস্ত করার পর বিশাল সংখ্যক শরণার্থীর জন্য তৈরি হয় কাজের সুযোগ।

সর্বশেষ এই ঘোষণার আয়ারল্যান্ডে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয়ের জন্য আবেদন করার ছয় মাস পর যে কেউ কাজের অনুমতির জন্য আবেদন করতে পারবে এবং কাজের অনুমতি পেলে এখন থেকে প্রতি ছয় মাসের বদলে এক বছর পর পর সেই অনুমতি নবায়ন করতে হবে।

আইরিশ সরকারের এক ঘোষণায় বলা হয়েছে, নয় মাসের শর্ত পূরণ না হওয়ায় গত ছয় মাসে যেসব শরণার্থীর কাজের আবেদন প্রত্যাখান করা হয়েছে, তারা আবার নতুন করে আবেদন করতে পারবে।

তবে এতেও সন্তুষ্ট হতে পারেনি আয়াল্যান্ডের শরণার্থীদের সংগঠন মুভমেন্ট অব অ্যাসাইলাম সিকার্স ইন আয়ারল্যান্ড (এমএএসআই)। সংগঠনটি সরকারের এই সিদ্ধান্তে হতবাক হয়ে উল্লেখ করে বলেছে, মানুষকে কাজ থেকে দূরে রাখা কখনোই ন্যায় সঙ্গত হতে পারে না।

এক বিবৃতিতে এমএএসআই বলেছে, গত বছরের মে মাসে আয়ারল্যান্ডের শরণার্থী গ্রহণ পদ্ধতি রিভিউ কমিটির চেয়ারপার্সন ক্যাথেরিন ডে সুপারিশ করেছিলেন যে, আয়ারল্যান্ডে আশ্রয়ের জন্য আবেদন করা মানুষদের আবেদনের তিনমাসের মধ্যে কাজে সুযোগ দেয়ার।

সংগঠনটি বলেছে, কাজেই বিশেষজ্ঞদের সুপারিশ ও সরকারের ইতোপূর্বে করা অঙ্গীকারের সঙ্গে নতুন এই ঘোষণার কোনো মিল নেই এবং এটি স্পষ্টতই শরণার্থীদের আস্থার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা।

উদ্বাস্তু অধিকার সংস্থা নাস্ক সরকারের সময় কমানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, আমরা আশা করছি ছয় মাসের এই শর্ত একটি অন্তবর্তীকালীন সিদ্ধান্ত। পরবর্তীতে শরণার্থীদের কাজের অনুমতির ক্ষেত্রে সময় কমিয়ে তিন মাস করা হবে। সংস্থাটি বলছে, যাদের আমরা আশ্রয় ও সুরক্ষা দেব তাদের কাজ করার সুযোগ দেব না সেটি অন্যায়।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]