ফাহমিদা নবীর কণ্ঠে মালয়েশিয়া প্রবাসী জাফর ফিরোজের ভাষার গান

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১০:৫১ এএম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশি চলচ্চিত্রকার জাফর ফিরোজের কথা ও সুরে ‘ত্যাগের গান’ শিরোনামের একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবী এবং আরজে রাজু। মাতৃভাষা দিবসকে উপজীব্য করে গানটি লেখা হয়েছে।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি আরজে রাজু এবং ১৪ ফেব্রুয়ারি ফাহমিদা নবী গানটির রেকর্ডিংয়ে অংশ নেন।

এর সঙ্গীতায়োজনে ছিলেন সজীব দাস। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জাফর ফিরোজের সঙ্গে এর আগে আরও দুটি গানের কাজ করেছিলাম। তার গানের কথাগুলোতে একটু ভিন্নতা আছে। এই গানটি ইতিহাস নির্ভর। আমার বিশ্বাস আমরা যারা ভাষা আন্দোলনে অংশ নিতে পারিনি তাদের কথা ভেবেই তিনি গানের কথাগুলোকে সাজিয়েছেন। আশা করি নতুন প্রজন্ম এই গানটির মাধ্যমে ভাষা সংগ্রামের ইতিহাস জানতে পারবে।

ফাহমিদা নবী বলেন, ‘ত্যাগের গান’ শিরোনামের এই গানটি আমাদের ভাষা শহিদদের স্মরণ করিয়ে দেয়। গানটি নিয়ে আমি আশাবাদী।

চমৎকার কথা, সুর ও নিখুঁত সঙ্গীত বুননে গানটি সবার হৃদয় ছুঁয়ে যাবে বলে আশাবাদী তিনি।

শিল্পী আরজে রাজু বলেন, ভাষা শহিদদের নিয়ে আমি এই প্রথম কোনো গান করলাম। সেটাও আবার ফাহমিদা আপার সাথে। ভাষা দিবস নিয়ে অসাধারণ একটি গান ‘ত্যাগের গান’ শিরোনামের গানটি। আমার বিশ্বাস এই গানটির মাধ্যমে আমাদের শহিদ দিবসের জন্য আরও একটি অসাধারণ গান সংযোজন হবে।

গানটির গীতিকার ও সুরকার জাফর ফিরোজের বলেন, প্রতিটি শিশুর মুখে প্রথম যে শব্দটি উচ্চারিত হয় তা হলো ‘মা’। মা হচ্ছে ভাষা, আমাদের মাতৃভাষা। সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারসহ নাম না জানা অসংখ্য বীরের ত্যাগের বিনিময়েই আজ আমরা বাংলায় কথা বলি। সেই অনুপ্রেরণা থেকেই গানটি লেখা। গানটিকে শুধু বাংলা বাংলা ভাষাভাষীদের মাঝেই সীমাবদ্ধ করতে চাই না। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে আমাদের ভাষা শহিদদের নাম উপস্থাপন করতে চাই এর মাধ্যমে।

সবকিছু ঠিক থাকলে ২১ ফেব্রুয়ারির আগেই গানটির অডিও এবং ভিডিও প্রকাশ করা হবে বলে জানান জাফর ফিরোজ।

এসএস/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]