ইসলামি ক্ষুদ্রঋণ গবেষণায় বিশ্বের সেরা গবেষক হবিগঞ্জের বাশার

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০১:৫২ পিএম, ২৩ জুন ২০২১ | আপডেট: ০২:১৯ পিএম, ২৩ জুন ২০২১

ইসলামি ক্ষুদ্রঋণ গবেষণায় বিশ্বের সেরা গবেষক হলেন হবিগঞ্জের ড. আবুল বাশার ভূঁইয়া। গত দুই দশকে ইসলামি ক্ষুদ্রঋণবিষয়ক গবেষণায় বিশ্বব্যাপী প্রকাশিত গবেষণা প্রবন্ধের পর্যালোচনা জরিপে সেরা গবেষক হিসেবে উঠে এসেছেন মালয়েশিয়ায় কর্মরত ড. আবুল বাশার ভূঁইয়ার নাম।

‘ইসলামিক মাইক্রোফিন্যান্স: এ বিবলিওমেট্রিক রিভিউ’ শিরোনামে এই গবেষণা সমীক্ষা দলের নেতৃত্ব দেন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব নিউ অর্লিনসের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত গবেষক এবং বিশ্বে ইসলামিক ফিন্যান্স গবেষণার অগ্রদূত অধ্যাপক ড. এম. কবির হাসান। যিনি ২০১৬ সালে আইডিবি কর্তৃক ইসলামি ব্যাংকিং এবং ফিন্যান্স গবেষণায় সর্বোচ্চ পুরষ্কার লাভ করেন।

তারই নেতৃত্বে রিভিউ গবেষণা প্রবন্ধটি গত ১২ জুন প্রকাশিত হয়, বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী প্রকাশনা সংস্থা এলসেভিয়ের জিপাবলিকেশন ডাটাবেজ, সায়েন্সডিরেক্টের আওতায় ওয়েব অফ সোশ্যাল সায়েন্স জেস স্কোপাস নিবন্ধিত গ্লোবাল ফিন্যান্স জার্নালে।

এই পর্যালোচনামূলক গবেষণা প্রবন্ধটি ২০০০ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত পৃথিবীর সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য তিনটি প্রকাশনা প্ল্যাটফর্ম গুগল স্কলারে প্রকাশিত এক হাজার ১৫২টি গবেষণার ওপর সমীক্ষা চালিয়ে চারটি পৃথক ক্যাটাগরিতে এইচ-ইনডেক্স, জি-ইনডেক্স এবং এম-ইনডেক্স বিবেচনার মধ্য দিয়ে ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

ইসলামি ক্ষুদ্রঋণ গবেষণায় বেস্ট কান্ট্রি ক্যাটাগরিতে মালয়েশিয়া সবচেয়ে এগিয়ে এবং একই দেশের ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া (আইআইইউএম) সেরা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ সিস্টেমস অ্যান্ড ইথিকস সর্বাধিক প্রাসঙ্গিক জার্নাল হিসেবে জায়গা করে নেয়।

ইসলামি ক্ষুদ্রঋণ গবেষণায় একক গবেষক হিসেবে সর্বাধিক প্রবন্ধ প্রকাশ এবং অন্যান্য গবেষকদের গবেষণায় তার ব্যবহৃত গবেষণা মডেল রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহার উভয় র্যাংকিংয়ে উঠে আসেন ড. আবুল বাশার ভূঁইয়া। তিনি বর্তমানে মালয়েশিয়ার সেলাংগরের প্রাদেশিক বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব সেলাংগরের ব্যবসায় শিক্ষা ও হিসাববিজ্ঞান অনুষদে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

এছাড়াও এক দশক ধরে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি গবেষণা ও পাঠদান করে আসছেন। একই সঙ্গে ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব শারিয়াহ অ্যান্ড করপোরেট গভর্ন্যান্স রিসার্চের প্রধান সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গেও সম্পাদক হিসেবে যুক্ত রয়েছেন তিনি।

এ পর্যন্ত বিভিন্ন প্রসিদ্ধ আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রায় একশটির বেশি প্রবন্ধ প্রকাশ এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশি এই সফল গবেষক। ২০১২ সালে ক্ষুদ্রঋণ ও টেকসই জীবিকা নির্বাহ বিষয়ের ওপর মালয়েশিয়ার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ইউকেএম) থেকে থেকে পিএইচডি ডিগ্রি নেন তিনি।

ড. আবুল বাশার ভূঁইয়া হবিগঞ্জের আজমিরিগঞ্জ উপজেলার পূর্ব পিটুয়ার কান্দি গ্রামের মুহাম্মদ আব্দুল মজিদ ভূঁইয়ার চতুর্থ সন্তান। নিজ এলাকায় ১৯৯৭ সালে মাধ্যমিক এবং ১৯৯৯ সালে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা শেষ করে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। বর্তমানে মালয়েশিয়ায় পার্মানেন্ট রেসিডেন্ট হয়ে সস্ত্রীক পরিবারসহ বসবাস করছেন। ব্যক্তিগত জীবনে এক কন্যা ও পুত্র সন্তানের জনক তিনি।

ড. আবুল বাশার ভূঁইয়ার নাম বিশ্বের সেরা গবেষকের তালিকায় উঠে আসায় মালয়েশিয়াস্থ জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ও দেশটিতে বসবাসরত বৃহওর সিলেট প্রবাসীরা তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

এআরএ/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]