মিশিগানে বসছে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ক্রিকেটের আসর

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৮ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

তোফায়েল রেজা সোহেল, মিশিগান (যুক্তরাষ্ট্র)

যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় খেলা বেসবল হলেও দেশটির মিশিগান রাজ্যে শুরু হচ্ছে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। ক্রিকেটকে জনপ্রিয় করতে এই উদ্যোগ নিয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশি সংগঠন মোটর সিটি চ্যাম্পিয়নশিপ (এমসিসি)।

রাজ্যের চারটি স্টেডিয়ামে তিন দিনব্যাপী টুর্নামেন্ট এ অনুষ্ঠিত হবে। আমেরিকার বিভিন্ন রাজ্যে ক্রিকেট ক্লাব টুর্নামেন্টে অংশ নেবে। বিভিন্ন দেশের জাতীয় দলের অনেক তারকা ক্রিকেটার ক্লাবের হয়ে খেলবেন বলে জানা গেছে।

টুর্নামেন্ট ঘিরে শনিবার রাতে রাজ্যের ওয়ারেন সিটির একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আয়োজকরা। এ সময় এমসিসি-২০২১ শিরোপা ট্রপি উন্মোচন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের প্রেসিডেন্ট মোশাররফ চৌধুরী লিটু এবং সেক্রেটারি তায়েফুর রহমান জানান, ৮ অক্টোবর এই টুর্নামেন্ট শুরু হবে। এতে ১০টি ক্লাব অংশ নেবে। ৪টি ভেন্যুতে একযোগে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে।

মিশিগান স্টেট থেকে এশিয়া ইউনাইটেড ক্রিকেট ক্লাব, রেপটর একাদশ, মিশিগান চিতাস ও মিশিগান ঈগলস ক্লাব। নিউইর্য়ক স্টেটের গ্যাডিয়েটর ক্রিকেট ক্লাব, বাংলাদেশ টাইগার্স অব ইউএসএ, ওজোন পার্ক ইউনাইটেড ক্রিকেট ক্লাব।

jagonews24

জর্জিয়া স্টেট থেকে জর্জিয়া টাইগার্স, ভার্জেনিয়া স্টেটের হার্ডন বেঙ্গলস এবং ওয়াসিনটন ডিসি থেকে ডিসি রেজিমেন্ট ক্রিকেট ক্লাব টুর্নামেন্টে অংশ নেবে।

খেলার ভেন্যুগুলো হচ্ছে— ড্রেটুয়েট সিটির লাক্সি রিক্রিয়েশন সেন্টার, রচেস্টার সিটির বলুমার পার্ক, পন্টিয়াক সিটির মারফি পার্ক এবং ওয়ারেন সিটির ট্রমলি পার্ক।

আয়োজকরা জানান, টুর্নামেন্টের প্রাইজ মানি থাকছে ৩৫ হাজার ডলার। চ্যাম্পিয়ন দলকে দেওয়া হবে নগদ ১৭ হাজার ডলারের সঙ্গে একটি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি।

টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর করছে ক্রিকেট একাডেমি অব ডেট্রয়েট। প্রাইম টাইম এস্টেট পরিচালিত টুর্নামেন্টের প্লাটিনাম স্পন্সর করেছে জেএমজি কার্গো।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মোটর সিটি চ্যাম্পিয়নশিপ- এমসিসির জগলুল হুদা মিতু, ইফতেখার আহমেদ, হাসান খান, রসি মীর, জুয়েল হুদা, অনুপম শর্মা, শাহদাত হোসেন মিন্টু, সেলিম আহমেদ, সায়েল হুদা, উপদেষ্টা সুশীল ভাট ও শাহিদ আহমেদসহ ১০টি ক্রিকেট দলের অধিনায়করা। সঞ্চালনায় ছিলেন রুম্মান আহমেদ স্বাগত।

এমআরএম/এএসএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]