সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে টরেন্টোতে মানববন্ধন

আহসান রাজীব বুলবুল
আহসান রাজীব বুলবুল আহসান রাজীব বুলবুল , কানাডা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৫:৫০ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০২১

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপ এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে সহিংসতার ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে দুর্বৃত্তদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে টরেন্টো প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

এসময় তারা বলেন, বিভিন্ন সময় সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিচার না হওয়ায় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা, নীপিড়ন বাড়ছে। এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়।

স্থানীয় সময় শুক্রবার টরন্টোর বাঙালিপাড়া হিসেবে পরিচিত ডেনফোর্থে আয়োজিত মানবন্ধনে এই দাবি জানানো হয়। ‘সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ স্লোগানে ‘সচেতন নাগরিক সমাজ, টরন্টো’- এই ব্যানারে সকল দলমতের মানুষের অংশগ্রহণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

পরে রাতে টরেন্টো ফিল্ম ফোরামের উদ্যোগে পৃথক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে টরেন্টোর সাংস্কৃতিক সংগঠক এবং কর্মীরা অংশ নিয়ে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের প্রতিবাদ জানান।

jagonews24

দুটি মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি সংবলিত পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন হাতে প্রতিবাদ করেন।

‘সচেতন নাগরিকদের মানববন্ধন শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন চাকসুর সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিমউদ্দিন আহমেদ। তিনি বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের সাম্প্রদায়িক উসকানির বিরুদ্ধে সাধারণ নাগরিকদের রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

টরেন্টো ফিল্ম ফোরামের মানববন্ধন শেষে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা নিরঞ্জন সরকার বাচ্চু, ফিল্ম ফোরামের সভাপতি এনায়েত করিম বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মনিস রফিক, ইঞ্জিনিয়ার আবদুল গফফার, অলক চৌধুরী, আজিমউদ্দিন আহমেদ, শিবু চৌধুরী,নবিউল হক বাবলু, রাজকুমার বিশ্বাস প্রমুখ।

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে কানাডার বিভিন্ন সংগঠন চারদিনের প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। তারই অংশ হিসেবে আজ দুটি মানববন্ধন পালিত হয়।

এমআরএম/এএসএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]