‘টুটুম জানতে চায় মেঘের কথা’

মো. ইয়াকুব আলী
মো. ইয়াকুব আলী মো. ইয়াকুব আলী
প্রকাশিত: ০৩:০৬ পিএম, ১৭ মে ২০২২

চমক হাসান ও ফিরোজা বহ্নির ২০২২ সালের বইমেলার বই ‘টুটুম জানতে চায় মেঘের কথা’। হাতে পেয়েই এক বসায় পড়ে শেষ করে ফেললাম। ভেতরে ছবি আছে এমন বই বাচ্চাদের সবসময়ই প্রিয়। বাচ্চারা সবকিছুর আগে ছবিগুলো দেখি আর ছবির শিরোনামগুলো পড়ে। তারপর পুরো বইটা পড়ে। অবশ্য এই বইয়ের প্রত্যেকটা পাতাতেই চমৎকার সব ছবি আছে।

সহজ কথায় ‘পানি চক্র’টা বোঝানো হয়েছে। যেটাকে বলে জলবৎ তরলং। এত মধুর ভাষায় বর্ণনা করা হয়েছে যে বাচ্চারা অনেক আনন্দ নিয়ে পড়বে বলেই আমার বিশ্বাস। লেখার ফন্টটাও দুর্দান্ত। দেখলে মনে হয় পুরো বইটা হাতে লেখা। আর ছবিগুলো খুবই মায়াবী। পানির কণাগুলোকে দেখে কেন জানি ভালোবেসে ফেলতে হয়। আর টুটুম নামটাও খুবই সুন্দর।

‘টুটুম জানতে চায় মেঘের কথা’

একেবারে শেষে বাবা-মায়েদের জন্য একটি নোট রয়েছে। সেখানে বলা আছে কীভাবে বাচ্চাদের আরও জানতে ইচ্ছে করলে সেটাকে নিবৃত্ত করতে হবে। আনন্দ নিয়ে কোনো কিছু পড়লে বা শুনলে সেটা আমরা কখনওই ভুলি না। তাই আমরা একেবারে ছোটবেলায় দাদা-দাদি, নানা-নানির কাছে শোনা রূপকথা কখনওই ভুলি না। তেমনি ভুলি না গল্পের বইয়ের চরিত্রগুলো।

আমি নিশ্চিত ফিরোজা বহ্নি ও চমক হাসানের এই সিরিজ বিজ্ঞানের বিষয়গুলোকে বাচ্চাদের উপযোগী করে তুলবে। বাচ্চারা অনেক আনন্দ নিয়ে বিজ্ঞানের খটমট বিষয়গুলোকে পানি খাওয়ার মতো করে সহজেই পড়ে ফেলবে।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]