মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে শেখ কামালের জন্মদিন পালন

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৫:২৩ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০২২
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসে শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা

মালয়েশিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বড় ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মদিন পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার (৫ আগস্ট) মালয়েশিয়ার সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় বাংলাদেশ দূতাবাসে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারোয়ার। দূতাবাসের ফার্ষ্ট সেক্রেটারি রেহানা পারভীনের সঞ্চালনায় সভার শুরুতে বঙ্গবন্ধু পরিবারের শহীদ সদস্যদের ছাড়াও মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত ও দোয়া পাঠ করা হয়।

দোয়া পাঠ শেষে রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন, কাউন্সিলর (বাণিজ্য) মো. রাজিবুল আহসান। প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন, ফার্ষ্ট সেক্রেটারি (লেবার) এ এস এম জাহিদুর রহমান।

বাণী পাঠ শেষে শেখ কামালের জীবনের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত ‘শেখ কামাল এক কিংবদন্তির কথা’ শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়।

এ সময় রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারোয়ার বলেন, ‘শেখ কামাল মাত্র ২৬ বছরের জীবনে বাঙালির সংস্কৃতি ও ক্রীড়াক্ষেত্রে এক বিরল প্রতিভাবান সংগঠক ও উদ্যোক্তা ছিলেন। ক্রীড়া ও সংস্কৃতিতে আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে তিনি কাজ করে গেছেন। তিনি দেশের তরুণ প্রজন্মের জন্য আজীবন অনুকরণীয়।’

jagonews24

রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বর্তমান সরকার অত্যন্ত সচেতন। দূতাবাসও প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করছে। মালয়েশিয়া সরকারের রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের আওতায় এক লাখ বাংলাদেশি কর্মী বৈধতা পেয়েছেন। এছাড়া, প্রবাসীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এক বছরে তিন লাখ পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত প্রবাসীদের নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে কাজ করে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের সম্মান আরও সমুন্নত করার অনুরোধ জানান। এছাড়া, সারা বিশ্বে চলমান সংকট উওরণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশিত পথে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- মালয়েশিয়া শ্রম কল্যাণ উইংয়ের মন্ত্রী মো. নাজমুস সাদাত সেলিম, প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা কমডোর মোস্তাক আহমেদ, কাউন্সিলর কনসুলার জিএম রাসেল রানা, দ্বিতীয় সেক্রেটারি (শ্রম) সুমন দাসসহ দূতাবাসের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

কমিউনিটি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- মকবুল হোসেন মুকুল, কামরুজ্জামান কামাল, রাশেদ বাদল, কাইয়ূম সরকার, মনিরুজ্জামান মনির,দাতু আক্তার হোসেনসহ আরও অনেকে।

এসএএইচ/এএসএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]