গ্রিসের ফলগেন্দ্রো দ্বীপ থেকে ৩৭ অভিবাসনপ্রত্যাশী উদ্ধার

প্রবাস ডেস্ক
প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৮ এএম, ০২ অক্টোবর ২০২২
ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে প্রতি বছর হাজার হাজার অভিসানপ্রত্যাশী গ্রিসে পৌঁছানোর চেষ্টা করে থাকেন। ফাইল ছবি। হোলেনিক কোস্টগার্ড/এপি/পিকচার অ্যালায়েন্স

এজিয়ান সাগরে অবস্থিত গ্রিসের ফলগেন্দ্রো দ্বীপ থেকে ৩৭ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে দেশটির কোস্টর্গাড। উদ্ধার হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীরা তুরস্ক থেকে নৌকায় করে সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করছিলেন।

উদ্ধারদের মধ্যে নয়জন শিশু এবং ৫ জন নারী রয়েছে। তাদের মধ্যে একজন গর্ভবতী নারীও রয়েছে বলে জানিয়েছে গ্রিসের কোস্টগার্ড। গ্রিসের সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, উদ্ধারের পর অভিবাসনপ্রত্যাশীদের দেশটির আয়োস বন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

গ্রিসের কোস্টর্গাডের ধারণা, ইতালিতে পৌঁছানোর উদ্দেশ্যে নৌকাটি তুরস্ক থেকে যাত্রা করেছিল। কিন্তু যাত্রাপথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে নৌকাটি ফলগেন্দ্রো দ্বীপের তীরে এসে ভেড়ে। কোস্টগার্ডের দৃষ্টি এড়াতে নৌকায় থাকা আরোহীরা তখন দ্বীপের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আশ্রয় নেন।

বুধবার কোস্টগার্ডের একটি দল নৌকাটি দেখতে পেয়ে তাদের সবাইকে আটক করে। কোস্টগার্ড জানায়, তুরস্ক থেকে ইতালি পৌঁছানোর জন্য অভিবাসনপ্রত্যাশীরা পাচারকারীদের প্রায় দশ লাখ করে টাকা দিয়েছিল।

জর্মানিতে মানবপাচারকারী আটক

এদিকে গত বুধবার জার্মান পুলিশ একজন সন্দেহভাজন মানবপপাচারকারীকে আটক করে। দেশটির বাডেম-ভ্যুর্টেমর্ব্যাগ রাজ্যের স্টুটগার্ট শহরের ১৮টি অ্যাপার্টমেন্ট এবং দুটি রেস্টুরেন্টে অভিযান চালায় পুলিশ।

পুলিশ জানায়, মানবপাচারের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ১৫-১৬ জনের একটি চক্রের সন্ধানে অভিযান পরিচালনা করে তারা।

সন্দেহভাজনদের অনেকেই তুরস্কের নাগরিক বলে ধারণা পুলিশের। তাদের মধ্যে অন্তত দুইজনের বিরুদ্ধে কাগজ নকল করে বিদেশিদের, বিশেষ করে তুরস্কের নাগরিকদের জার্মানিতে নিয়ে আসার অভিযোগ রয়েছে।

সূত্র: ইনফোমাইগ্রেন্টস

এমআরএম/এমএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]